বিচারের নামে ব্যবসায়ীকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে ইবির গোস্বামী দুর্গাপুরের ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে

 

হালসা প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার ইবি থানার গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদে বিচারের নামে ব্যবসায়ীকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। গতকাল শনিবার দুপুরে ইবি থানার গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদে বিচারের নামে ইউনিয়নের দক্ষিণ মাগুরার ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরকে লাঠি দিয়ে পিটিয়েছে।

জানা যায়, কুষ্টিয়া ইবি থানার গোস্বামী দুর্গাপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ মাগুরার খলিলুর রহমানের ছেলে ভূষিমাল ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরের নামে তারই বোন-জামাই প্রবাসী মিরাজুল ইউনিয়ন পরিষদে অভিযোগ করে। দীর্ঘদিন আগে জাহাঙ্গীরের  পিতা তার নামে দুবিঘা জমি রেজিষ্ট্রি করে দেয়। ভালো পজিশন ও বর্তমানে সেই জমির দাম বেশি হওয়ায় তার বোন-জামাই প্রবাসী মিরাজুল নিজের নামে ওই জমি রেজিষ্ট্রি করে নেয়ার লালসা করে। মিরাজুল তার স্ত্রী ও শ্বশুরকে দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দবির উদ্দিনের নিকট অগিযোগ দেয়। টাকার বিনিময়ে স্থানীয় কিছু আওয়ামী লীগের নেতা মিরাজুলের সাথে হয়ে চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে। গতকাল শনিবার ভূষিমাল ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীরকে বিচার করার জন্য পরিষদে ডাক দেয়। বিচারে জাহাঙ্গীরকে তার নামে রেজিষ্ট্রিকৃত জমি ফেরত দিতে বলে। জাহাঙ্গীর অস্বীকার করলে চেয়ারম্যান জোর করে শাদা কাগজে স্বাক্ষর ও টিপসহি করিয়ে নেয় এবং জাহাঙ্গীরকে বেতের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।

এ ব্যাপারে কুষ্টিয়া জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী বলেন, দলীয় কোনো নেতাকর্মী ও চেয়ারম্যান কোনো মানুষকে পিটিয়ে আহত করলে ও জবর দখল করে জমি দখল করলে তার দায়ভার দল নিবে না। দলের ইমেজ নষ্ট করার জন্য কিছু নেতাকর্মী ও চেয়ারম্যানগণ সাধারণ মানুষের ওপর নির্যান করছেন যা কাম্য নয়। এ ব্যাপারে আহত জাহাঙ্গীর পাটিকাবাড়ী পুলিশ ক্যাম্পে অভিযোগ দিতে আসলে তাকে থানায় মামলা করার জন্য থানাতে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। ভূষি ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর চরম নিরাপত্তা হীনতায় দিন যাপন করছে বলে জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published.