বাড়ছে লবণের দাম

স্টাফ রিপোর্টার: গত চার/পাঁচ বছরে নিত্যপ্রয়োজনীয় যে দ্রব্যের দামে হেরফের হয়নি এবার সেই লবণে খরচ বাড়ছে ক্রেতাদের। এক সপ্তাহের মধ্যে রাজধানীর বাজারগুলোতে কেজি প্রতি লবণের দাম ২ থেকে ৭ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর বাজারগুলোতে খোলা লবণ প্রতি কেজি ২০ থেকে ২২ টাকা এবং প্যাকেটজাত লবণ কোম্পানি ভেদে ২৫ থেকে ৩২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। গত সপ্তাহ খোলা লবণ ১৮ থেকে ২০ টাকা এবং প্যাকেটের লবণ ২০ থেকে ২৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয় বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন। সরকারের বাণিজ্যিক সংস্থা টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, এক মাসের ব্যবধানে লবণের দাম ২৫ শতাংশ বেড়েছে। হঠাৎ লবণের দাম বাড়ার জন্য সরবরাহে ঘাটতি এবং আমদানির ওপর বাধার কথা বলছেন ব্যবসায়ীরা। আমদানির বিষয়ে সরকার নমনীয় না হলে দাম আরও বাড়তে পারে বলেও সতর্ক করেছেন তারা। বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুঠির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) হিসাবে দেশে বছরে ১৬ লাখ ৫০ হাজার টন লবণের চাহিদা রয়েছে। গতবছর দেশে উৎপাদন হয়েছে ১২ লাখ টন। চাহিদার তুলনায় উৎপাদন কম হওয়ায় গত বছরের অক্টোবরে এক বৈঠকে সাড়ে ৩ লাখ টন লবণ আমদানির সিদ্ধান্ত নেয় জাতীয় লবণ কমিটি। তার বিপরীতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এক লাখ টন লবণ আমদানির অনুমোদন দেয় বলে বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির সাবেক সভাপতি পরিতোষ কান্তি সাহা জানান। বালী সল্টের মালিক পরিতোষ বলেন, সরকারের ভুল নীতির কারণে লবণের দাম বাড়ছে। সরকার লবণ আমদানির ওপর নিয়ন্ত্রণ তুলে না নিলে এই পণ্যটির দাম আরও বেড়ে যেতে পারে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *