বাসস্ট্যান্ড থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত সোলার প্যানেল বসিয়ে তাড়ানো হবে অন্ধকার

দামুড়হুদা উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় এমপি আলী আজগার টগর
দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদা থেকে চিৎলা হাসপাতাল পর্যন্ত সোলার প্যানেল বসিয়ে সড়কের অন্ধকার দূর করে দিন ও রাতে যাতে সকলে নির্বিঘেœ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবা নিতে পারে তা নিশ্চিত করা হবে। গতকাল রোববার বেলা ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় কমিটির সভাপতি হাজি আলী আজগার টগর এ ঘোষণা দেন।
হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান মাও. আজিজুর রহমান, দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রফিকুল হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছালমা জাহান পারুল, দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, জেলা পরিষদের সদস্য শফিউল কবির ইউসুফ, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ নেতা আব্দুস সালাম ভুট্টু, সাবেক মেম্বার আবুল হাশেম, যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন, শাহিন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাজু আহম্মেদ রিংকু প্রমুখ। সভায় এমপি আলী আজগার টগর বলেন, নানা সমস্যায় জর্জরিত হাসপাতালটির সেবার মান ফিরিয়ে আনতে ইতোমধ্যেই বেশকিছু উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। অচিরেই একটি নতুন অ্যাম্বুলেন্স এবং একটি এক্স-রে মেশিনের ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়া দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড থেকে চিৎলা হাসপাতাল পর্যন্ত সড়কের দু ধারে সোলার প্যানেল বসানো হবে। সেই সাথে সাথে দামুড়হুদার গুলশানপাড়ায়ও সোলার প্যানেল বসানোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি আরও বলেন, শুধুমাত্র জুলাই মাসেই উপজেলার ২৮টি কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে ১৬ হাজার ৩৪১ জনকে এবং ৭টি সাব সেন্টারের মাধ্যমে ১৬ হাজার ৬২৫ জনকে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া যে ১৬টি কমিউনিটি ক্লিনিকে এখনও বিদ্যুত সংযোগ দেয়া হয়নি ওই সমস্ত কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোতে অচিরেই বিদ্যুতের ব্যবস্থা নেয়া হবে। হাসপাতালের চিকিৎসকের সংখ্যা বাড়ানোর লক্ষেও নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.