বাংলাদেশ সরকারের দমননীতির সমালোচনায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেষ্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বাংলাদেশে বিরোধী দলের বিরুদ্ধে দমনমূলক পদক্ষেপের কড়া সমালোচনা করে অবিলম্বে তা বন্ধের দাবি জানিয়েছে। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, ইটিভির মালিক আবদুস সালাম এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে পুলিশ যে মামলা করেছে, তা যে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, তা মনে করার যথেষ্ট কারণ আছে। লন্ডনভিত্তিক এ সংস্থার মুখপাত্র আব্বাস ফয়েজ এ গ্রেফতারের ঘটনাকে বাংলাদেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা এবং এবং শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করার অধিকারের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন বলে বর্ণনা করেন। বুধবার নোয়াখালীতে পুলিশের সাথে বিএনপি সমর্থকদের দুজন নিহত হওয়ার ঘটনা তদন্তেরও দাবি জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। অনেকটা একইরকম কড়া ভাষায় দেয়া এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক হিউম্যান রাইটস অবিলম্বে বিরোধী দলের বিরুদ্ধে দমন-পীড়ন বন্ধ এবং গণমাধ্যমের ওপর থেকে বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার দাবি জানায়। হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে, বাংলাদেশে বিএনপি এবং জামায়াতে ইসলামীর শ শ কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সংস্থার এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ব্রাড এডামস বলেন, সরকার যেভাবে নির্বিচারে মাত্রাতিরিক্ত বল প্রয়োগ করছে, যাকে খুশি গ্রেফতার করছে এবং সেন্সরশিপ আরোপ করছে তাতে করে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *