বাঁশবাড়িয়ার কোটিপতি ঘরজামাই ঢাকাইয়া বিল্লালকে আইনশৃঙ্গলা বাহিনী পরিচয়ে আটকের অভিযোগ

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়িয়া গ্রামের কোটিপতি ঘরজামাই ঢাকাইয়া বিল্লালকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে আটকের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত মঙ্গলবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে তাকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বিল্লালের বিরুদ্ধে ঢাকায় হেরোইনের ব্যবসা করার গুঞ্জন রয়েছে।
জানা গেছে, আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়িয়া গ্রামের জনাব আলীর ঘরজামাই বিল্লাল হোসেন। ঢাকা শহরে বাড়ি ও ব্যবসা আছে দাবি করে প্রায় সাড়ে ৩ বছর আগে তিনি বাঁশবাড়িয়া গ্রামের কৃষক জনাব আলীর মেয়েকে বিয়ে করেন। গত মঙ্গলবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে তাকে আটক করে নিয়ে গেছে বলে গ্রামবাসী জানিয়েছে। বিল্লাল হোসেন বিয়ের পরে শ্বশুরের গ্রামে প্রায় ৩০ লাখ টাকার জমি কিনেছেন বলে জানা গেছে। জমি বিক্রির কথা শুনলেই তা যত বেশি দামই হোক বিল্লাল হোসেন কিনে নেন। এত টাকা তিনি কোথা থেকে উপার্জন করে? এমন প্রশ্ন উঠলে ঢাকায় তার ব্যবসা আছে বলে জানানো হয়।
গ্রামবাসী আরও জানিয়েছে, কোটিপতি ঘরজামাই বিল্লাল হেরোইনের ব্যবসা করেন। বাঁশবাড়িয়া গ্রামের আনস উদ্দীনের ছেলে সুরুষ আলী বিল্লাল হোসেনের ভায়রা। গত প্রায় আড়াই বছর আগে চাকরিম দেয়ার কথা বলে তাকে বিল্লাল হোসেন ঢাকায় নিয়ে যান। সেখানে তাকে দিয়ে হেরোইনের ব্যবসা করানোর এক পর্যায়ে সুরুষ হেরোইনসহ ঢাকায় পুলিশের হাতে আটক হন। এখনও তিনি জেলহাজতে রয়েছেন। বিল্লাল হোসেন জামিনের ব্যবস্থা করার প্রতিশ্রুতি দিলেও এখনও জামিন করতে পারেনি বলে গ্রামের অনেকেই জানিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *