প্রাণ খুলে হাসলেন কাজী জাফর

স্টাফ রিপোর্টার: কাজী জাফর আহমদ তখন ইউনাইটেড হসপিটালের ৫০৩নং কেবিনে। একান্ত আলাপচারিতায় ব্যস্ত রয়েছেন এ প্রতিবেদকের সাথে। হঠাত করেই তার ব্যক্তিগত সহকারী গোলাম মোস্তফা বলে উঠলেন এরশাদ নির্বাচন থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রথমে কিছুটা হতবাক কাজী জাফর। তিনি গোলাম মোস্তফাকে বললেন, টিভি চালু করো। একটি বেসরকারি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছে বনানী কার্যালয় থেকে এরশাদের প্রেসব্রিফিং। প্রেসব্রিফিং দেখছেন আর হাসছেন কাজী জাফর। পাশ থেকে একজন বলে উঠলেন স্যার আপনার বিজয় হয়েছে। এবার অনেকটা উচ্চ স্বরেই হাসা শুরু করলেন তিনি। কিছুক্ষণের মধ্যেই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে একের পর এক নেতাকর্মীরা ফোন করছে আর শুভেচ্ছা জানাচ্ছে কাজী জাফরকে। এক পর্যায়ে উপস্থিত হলেন তার দলের মহাসচিব গোলাম মসীহ। দুজনে কোলাকুলি করলেন আর বললেন আমাদের সিদ্ধান্তই সঠিক। গোলাম মোস্তফাকে ডেকে কাজী জাফর বললেন, আমি সুস্থ হয়ে গেছি, বাসায় যাবো।

এরশাদের ঘোষণার প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে, কাজী জাফর বলেন, আমাদের আংশিক বিজয় হয়েছে। শেখ হাসিনা যখন নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নিয়ে পদত্যাগ করবে তখনই পরিপূর্ণ বিজয় আসবে। তিনি শেখ হাসিনার উদ্দেশে বলেন, এ মুহূর্তে আপনি পদত্যাগ করুন। না হলে আপনার সামনে শোচনীয় পরাজয় আর মর্মান্তিক পরিণতি অপেক্ষা করছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার দুপুরে বনানী কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নির্বাচন থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়েছেন জাপা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এর আগে নির্বাচনে যাওয়ার সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়ে তার বিরুদ্ধে গণমাধ্যমে বিবৃতি দেন কাজী জাফর।এক পর্যায়ে দুজন দুজনকে পার্টি থেকে পাল্টাপাল্টি বহিষ্কার করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.