প্রাণের হলুদ প্রত্যাহার দেশেও

স্টাফ রিপোর্টার: যুক্তরাষ্ট্রের পর দেশীয় বাজারে ছাড়া গুঁড়া হলুদেও অতিরিক্ত মাত্রায় সীসার উপস্থিতি পাওয়া যাওয়ায় পণ্যটি প্রত্যাহার করে নিয়েছে প্রাণ কর্তৃপক্ষ।

শনিবার প্রাণ-আরএফএলের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে রপ্তানিকৃত প্রাণ গুঁড়া হলুদের কতিপয় ব্যাচে এফডিএ সীসার উপস্থিতি শনাক্ত করেছে বলে আমদানিকারকদের মাধ্যমে প্রাণ কর্তৃপক্ষ জানতে পারে। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রাণ গুঁড়া হলুদ বিএসটিআই, বিসিএসআইআরসহ আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে সাম্প্রতিককালে পরীক্ষা করানো হয়। একই প্রতিষ্ঠানের কিছু কিছু পরীক্ষায় প্রাণ গুঁড়া হলুদে মাত্রাতিরিক্ত সীসার উপস্থিতি পাওয়া গেছে এবং কোনো কোনো রিপোর্টে সীসার অনুপস্থিতি দেখা গেছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। প্রাণ-আরএফএলের পরিচালক (মার্কেটিং) কামরুজ্জামান কামাল স্বাক্ষরিত ওই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “আমাদের প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে মনে হচ্ছে বাংলাদেশের কতিপয় স্থানে উৎপাদিত হলুদে মাত্রাতিরিক্ত সীসার উপস্থিতি থাকতে পারে যা হয়তোবা অন্য এলাকার হলুদে নাই। ভোক্তাদের জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে বাজার থেকে প্রাণ গুঁড়া হলুদ তুলে নেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে প্রাণ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যা এরই মধ্যে কার্যকর করা হয়েছে। এর আগে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর মাত্রার সীসা থাকার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের বাজার থেকে প্রাণ ব্রান্ডের হলুদের গুঁড়া প্রত্যাহারে দেশটির খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন-এফডিএ’র পরামর্শের পর তা প্রত্যাহারের ঘোষণা আসে। এফডিএ জানায়, রাসায়নিক পরীক্ষায় প্রাণের গুঁড়া হলুদে ৫৩ পিপিএম (পার্টস পার মিলিয়ন) পর্যন্ত সীসা পাওয়া গেছে, যা নবজাতক, শিশু-কিশোর ও গর্ভবতী নারীর জন্য খুবই ক্ষতিকর।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *