প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা বিএনপির পৃথক তিনটি অংশের প্রস্তুতিসভা

ঐক্যবদ্ধভাবে জাতীয়তাবাদী দলকে সুসংগঠিত করার আহ্বান

 

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ১ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির পৃথক তিনটি অংশ পৃথকভাবে প্রস্তুতিসভা করেছে। স্থানীয় যুবদলের একাংশও প্রস্তুতিসভা করে বলে প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে।

জেলা বিএনপি একাংশের উদ্যোগে গতকাল বিকেল চারটায় কেদারগঞ্জস্থ কার্যালয়ে এক প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা বিএনপির একাংশের সভাপতি অ্যাড. এমএম শাহাজাহান মুকুলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য জেলা বিএনপির একাংশের সভাপতি মুহা. অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস। বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সদর উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে সন্ধ্যা সাতটার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর বিএনপি একাংশের সহসভাপতি মুন্সি আওরঙ্গজেব বেল্টুর সভপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। একই স্থানে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা বিএনপির একাংশের উদ্যোগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকাল ১০টায় প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়। মহাবুল হকের সভাপভাপতিত্বে সদর থানা যুবদলের একংশের সিনিয়র যুগ্মআহ্বায়ক সাইদুর রহমানের পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন একাংশের সভাপতি মুহা. অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস। উপস্থিত ছিলেন- জেলা বিএনপির একাংশের যুগ্মসম্পাদক মাহামুদুল হক পল্টু, মুন্সি আওরঙ্গজেব বেল্টু মিলন মেম্বর প্রমুখ।

অপরদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি নেতা ও বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরামের উপদেষ্টা লে. কর্নেল সৈয়দ (অব.) কামরুজ্জামান বলেছেন, বাংলাদেশের এক দুর্যোগময় মুহূর্তে বিএনপির জন্ম হয়েছিলো। বিএনপির জন্ম না হলে হয়তো বাংলাদেশের ইতিহাস অন্যভাবে রচিত হতো।

চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আহ্বায়ক অ্যাড. আব্দুল ওহাব মল্লিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতিসভায় কর্নেল কামরুজ্জামান চুয়াডাঙ্গার রাজনীতির বিভিন্ন দিক উল্লেখ করে নেতাকর্মীদের বলেন, আসুন আমরা সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে শহীদ জিয়ার আদর্শের রাজনীতির বাস্তবে রুপ দিই। সভায় উপস্থিত নেতাকর্মীদের আগামী ১ সেপ্টম্বর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সফল করারও আহ্বান জানান তিনি। সভায় চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি এবিএম হাসান হাসু বলেন, একমাত্র শহীদ জিয়ার আদর্শই ভেঙে পড়া সমাজ ব্যবস্থাকে উন্নতি করতে পারে। এজন্য আমাদের সকলকে শহীদ জিয়াকে অনুসরণ করা উচিত। প্রস্তুতি সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন- চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সাংগাঠনিক সম্পাদক সরদার আলী হোসেন।

এদিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির অর্থবিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের পক্ষে গতকাল বিকেল চারটায় চুয়ডাঙ্গা জেলা আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে এক প্রস্তুতিসভা  অনুষ্ঠিত হয়। কৃষকদল নেতা হামিদুল হক নেতাজীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপি নেতা আরশেদ আলী কালু, জেলা তৃণমূল দলের আহ্বায়ক আবু বক্কর সিদ্দিক বকুল প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *