পুলিশের মোটরসাইকেল চুরি : থলেনদার পুলিশের ড্রাইভার!

জীবননগর ব্যুরো: পুলিশের চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলের থলেনদার যখন পুলিশ ড্রাইভার। পুলিশই যদি চোরাই মালের থলেনদার হয় তাহলে নিরাপদ কোথায়? এ প্রশ্ন আমজনতার।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত ১ জুন ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশের ক্যাম্প থেকে ডিবি পুলিশ মশিয়ার রহমানের ২শ সিসি একটি মোটরসাইকেল চুরি হয়। ভিডিও ফুটেজ দেখে চোর শনাক্ত করে ডিবি পুলিশ। চোর কালীগঞ্জের বারবাজারের রাসেল। ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। রাসেল মোটরসাইকেল চুরির কথা স্বীকার করে তথ্য দেয়। চুরিকৃত মোটরসাইকেলটি জীবননগর থানার পিকআপের ড্রাইভার আলামিনের কাছে বিক্রি করে। ফাঁদ পাতে ডিবি পুলিশ। গত মঙ্গলবার রাতে ডিবির ফাঁদে পা দিয়ে হাসাদাহ বাজারে আরও একটি চোরাই মোটরসাইকেল কিনতে যায়। রাত ১২টার দিকে ঝিনাইদহ ডিবি পুলিশ তাকে হাতেনাতে আটক করে মারপিট শুরু করে। এ সময় সে পুলিশ সদস্য বলে ডিবি পুলিশকে জানায়। আল আমিন জানায়, চোরাই মোটরসাইকেলটি বাজারের ব্যবসায়ী ফয়সালের নিকট সে বিক্রি করেছে। পরে জীবননগর শহরের পানবাজার থেকে চুরি যাওয়া মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে ডিবি পুলিশ। পরে আল আমিনকে থানায় সোপর্দ করা হয়। এদিকে ড্রাইভার আল আমিনকে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *