পুলিশের বিশেষ ভূমিকায় ঝিনাইদহে যানজটমুক্ত

 

 

ঝিনাইদহ অফিস: রমজান মাসজুড়ে ট্রাফিক পুলিশের বিশেষ ভূমিকায় ঝিনাইদহে যানজটমুক্ত করা হয়েছে। এতে করে যানজটের ভোগান্তি থেকে রেহাই পাচ্ছে জনসাধারণ। ঈদ উপলক্ষে মার্কেটগুলোতে ভিড় করছে ক্রেতা সাধারণ। তাদের বহন করে নিয়ে আসা যানবাহনগুলো পুলিশের বিশেষ ব্যবস্থায় একটি নির্দিষ্ট স্থানে পার্কিং করে ঘুরিয়ে দেয়া হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঝিনাইদহ জেলা শহর যানজটমুক্ত করতে মোড়ে মোড়ে পুলিশ নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া শহরের মধ্যে বড় কোনো যানবহন প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না এবং ইজিবাইকগুলো মার্কেট এলাকায় ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। এ জন্য পায়রা চত্বর, ক্যাসেল ব্রিজ, গীতাঞ্জলি সড়ক,পোস্টঅফিস মোড়ে পুলিশ পাহারা বসানো হয়েছে। একদিকে পুলিশ যেমন যানজটমুক্ত করছে, অন্যদিকে চুরি, ছিনতাই থেকে সাধারণ মানুষ রেহাইও পাচ্ছে। মানুষ নির্বিচারে মার্কেটগুলোতে এসে নির্দ্বিধায় তাদের পছন্দের জিনিসপত্র কেটাকাটা করতে পারছে।

এব্যাপারে ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সালাহউদ্দীন আহমেদ জানান, সার্জেন্ট ও ট্রাফিকদের সাথে করে আমি নিজেই ফিল্ডে কাজ করে যাচ্ছি। ঝিনাইদহ শহরে যানজটের মূল কারণ ইজিবাইক। একের পর এক ইজিবাইক বাড়তেই আছে। তবে রমজান মাসে আমরা যখন যানজটমুক্ত করতে পেরেছি। এখন চেষ্টা করছি এটি যাতে সারা বছর অব্যাহত থাকে।

ঝিনাইদহ শহরের আরাপপুর মাস্টারপাড়া এলাকার সাধারণ পথচারী মনোয়ার হোসেন জানান, পুলিশ ইচ্ছা করলে পারে না কী?রজমানের আগে ইজিবাইকের কারণে শহরে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হতো। এখন শহরের বিশেষ স্থানগুলো যানজটমুক্ত হওয়ায় সকলের ভোগান্তি অনেক কমে গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.