পারিবারিক কলহের জের ধরে দামুড়হুদার ভগিরথপুরের গৃহবধূ ছালমার আত্মহত্যা

নতিপোতা প্রতিনিধি: পারিবারিক কলহের জের ধরে দামুড়হুদার নতিপোতা ইউনিয়নের ভগিরথপুর গ্রামের মাঝপাড়ার ছালমা নামের এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে তার নিজ গৃহে বিষ পান করে সে। তাকে উদ্ধার করে দামুড়হুদার চিৎলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির কয়েক মিনিটের মধ্যে মারা যায় ছালমা খাতুন (২৫)।

এক প্রতিবেশী জানান, গত দু বছর আগে ননদের মেয়ের কানের দুল চুরি হয়ে যায়। এ কানের দুল চুরি হয়ে গেলে নিজের পুত্রবধূর নামে চুরির বদনাম দেয় স্বামী রিপনের পরিবার। গত মঙ্গলবার সে ননদের মেয়ের চুরি হওয়া কানের দুল তার ননদের মেয়ের কানে দেখতে পায়। শুরু হয় পারিবারিক কলহ। এ কলহের জের ধরেই আত্মহত্যা করেছে বলে জানায় তার প্রতিবেশীরা। মেহেরপুরের পিরোজপুর গ্রামের মেয়ে ছালমা খাতুনের ৫ বছর আগে বিয়ে হয় দামুড়হুদার ভগিরথপুর গ্রামের কবির আলী ছেলে রিপন আলীর সাথে। এটা ছিলো রিপনের দ্বিতীয় বিয়ে। বিয়ের এক বছরের মাথায় জন্ম নেয় শোভারানী নামের এক ফুটফুটে কন্যাসন্তান। এ বিষয়ে কোনো মামলা হয়েছে কি-না তা জানা সম্ভব হয়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *