পাকিস্তানে বাস-ট্যাঙ্কার সংঘর্ষে নিহত ৫৭

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাকিস্তানের বন্দরনগরী করাচির উপকণ্ঠে গতকাল রোববার ভোরে বাস এবং তেলবাহী ট্যাঙ্কারের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষে অন্তত ৫৭ জন মর্মান্তিকভাবে নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে অনেক নারী ও শিশু রয়েছে। করাচির ইস্পাত নগরী থেকে শিকারপুর যাওয়ার পথে সুপার হাইওয়ের কাথোর লিংক রোডে চলন্ত ট্যাঙ্কারের সাথে এ সংঘর্ষ হয়। মধ্যরাতের একটু পরেই এ সংঘর্ষ হয়েছে এবং ট্যাঙ্কারটি ভুল দিক থেকে ছুটে এসে প্রায় যাত্রীবাহী বাসটিকে ধাক্কা দেয়। বাসটিতে এ সময়ে ৬০ জনের বেশি যাত্রী ছিলো। সংঘর্ষের পরই বাসে আগুন ধরে যায়। বাসটির দরজায় তালা লাগানো ছিলো এবং ছাদে বসা প্রায় ছয় যাত্রী লাফিয়ে প্রাণ বাঁচাতে পারেন। অবশ্য বাসচালক, হেলপার এবং ট্রাকচালক তাদের প্রাণ বাঁচাতে পেরেছে। দমকলবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর আগেই বাস ও ট্যাঙ্কারটি পুরোপুরি পুড়ে যায়। যাত্রীদের অধিকাংশই মারাত্মক অগ্নিদগ্ধ হয়েছে এবং ডিএনএ পরীক্ষা ছাড়া তাদের পরিচয় উদ্ধারের কোনো উপায়ই আর নেই বলে পুলিশ জানিয়েছে। তিন মাসের মধ্যে পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে এ নিয়ে দ্বিতীয় মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *