পাঁচ ফেরি বিকল : ৫ শতাধিক যান পারাপারের অপেক্ষায়

স্টাফ রিপোর্টার: দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ৫টি ফেরি বিকল হয়ে পড়ায় দেশের গুরুত্বপূর্ণ নৌরুটে যানবাহন পারাপার ব্যাহত হচ্ছে। গতকাল শনিবার বিকেল পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার পণ্যবাহী ট্রাকের লম্বা লাইন তৈরি হয়েছে। এতে ৫ শতাধিক বিভিন্ন যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় আটকা পড়েছে। যানবাহনের যাত্রী ও পরিবহন সংশ্লিষ্টরা চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

বিআইডব্লিউটিসি সূত্রে জানা গেছে, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট দিয়ে প্রতিদিন প্রায় তিন হাজারের অধিক যানবাহন পারাপার হয়ে থাকে। এ নৌরুটে ছোট-বড় মিলে মোট ১৮টি ফেরি যানবাহন পারাপার করছে। কিন্তু বিভিন্ন যান্ত্রিক সমস্যায় ৫টি ফেরি বিকল হয়ে গেছে। শুক্রবার সন্ধ্যার পর থেকে একে একে রো রো (বড়) ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান, ভাষা শহীদ বরকত, কে-টাইপ ফেরি কাবেরী, ইউটিলিটি ফেরি বনলতা ও রজনীগন্ধা ফেরি বিভিন্ন যান্ত্রিক সমস্যায় বিকল হয়ে পড়ে। ফেরিগুলো মেরামতের জন্য পাটুরিয়া ভাসমান কারখানায় রাখা হয়েছে। এর মধ্যে রো রো ফেরি ভাষা শহীদ বরকতে বড় ধরনের যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়েছে। এ ফেরিটি মেরামতের জন্য নারায়ণগঞ্জ ডকইয়ার্ডে পাঠাতে হবে।

এদিকে তীব্র ফেরি সঙ্কটের কারণে শনিবার বিকেল ৪টা নাগাদ দৌলতদিয়া ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় আটকে পড়েছে যাত্রীবাহী বাসসহ অন্তত ৫ শতাধিক যানবাহন। গাড়ির সারি দৌলতদিয়া ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের বাংলাদেশ হ্যাচারিজ পর্যন্ত অন্তত সাড়ে ৩ কিলোমিটার ছাড়িয়ে যায়। সময় বাড়ার সাথে সাথে যানবাহনের সংখ্যাও বাড়তে থাকে।

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য)শফিকুল ইসলাম জানান, অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ ও কয়েকটি ফেরি বিকল থাকায় ঘাট এলাকায় কিছু যানবাহন আটকা পড়েছে। যাত্রী দুর্ভোগ কমাতে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস পারাপার করা হচ্ছে। এতে পণ্যবাহী  ট্রাকের সংখ্যা বাড়ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *