মেহেরপুর উজুলপুরে বোমার বিস্ফোরণে নিহত ডাকাতের পরিচয় মিলেছে

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর সদর উপজেলার উজুলপুর গ্রামে ডাকাতিকালে নিজেদের বোমা বিস্ফোরণে নিহত ডাকাতদলের সদস্যের পরিচয় মিলেছে। তার নাম আলম (৩০)। তার বাড়ি সদর উপজেলার শ্যামপুর গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গত রোববার রাত পৌনে ১টার দিকে উজুলপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের বাড়িতে ৭/৮ জন ডাকাত বাড়ির গ্রিল ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে। আব্দুল জলিল ডাকাতদলের এক সদস্যকে জাপটে ধরে। ওই সময় ডাকাতদের ধারালো অস্ত্রের এলোপাতাড়ি আঘাতে গৃহকর্তা আব্দুল জলিল (৫০) ও তার ছেলে মাসুদ হোসেন (৩০) আহত হন। তাদের আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা জড়ো হয়ে প্রতিরোধ করলে ডাকাতদলের সদস্যরা বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালানোর চেষ্টা করে। পালানোর সময় পিচ্ছিল মাটিতে পা ফঁসকে পড়ে গেলে কাছে থাকা বোমার বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় ডাকাতদলের এক সদস্য। দ্রুত গৃহকর্তা আব্দুল জলিল ও তার ছেলে মাসুদ হোসেনকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। খবর পেয়ে মেহেরপুর সদর থানার ওসি রিয়াজুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ ওই রাতেই ঘটনাস্থল যায় ও নিহত ডাকাতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়। লাশের পরিচয় পেতে তাকে উন্মুক্ত স্থানে রাখা হলে নিহতের স্বজনরা তাকে শনাক্ত করে। সে মেহেরপুর সদর উপজেলার আমঝুপি ইউনিয়নের শ্যামপুর গ্রামের কুতুবউদ্দিনের ছেলে আলম। এক পুত্রসন্তানের জনক আলম পেশায় একজন কৃষক হলেও তার মাঝেমধ্যে চুরি-ছিনতাইয়ের অভ্যাস ছিলো বলে এলাকাবাসী জানিয়েছে।

গতকাল সোমবার লাশের ময়নাতদন্ত শেষে লাশ স্বজনদের হাতে তুলে দিলে রাতে গ্রাম্য গোরস্তানে দাফন করা হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ডাকাতি ও নিহত হওয়ার ঘটনায় সদর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *