নির্বাচনী সংলাপে বসছে দুদক

 

স্টাফ রিপোর্টার: আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে প্রধান দুই দলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিয়ে সংলাপে বসছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। নির্বাচনে দুর্নীতির বিষয়ে মনোনয়নপ্রার্থী ও ভোটারদের সচেতন করতে ৬৪ জেলায় বড় আয়োজনে শুরু হচ্ছে দুদক সংলাপ। দুদকের এ আলোচনার টেবিলে থাকবেন সম্ভাব্য প্রার্থী, সুশীলসমাজের প্রতিনিধি, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব এবং দুদক কর্মকর্তারা। কমিশনের নিয়মিত কয়েকটি সভায় দুদকের প্রধান নির্বাহীরা এ সংলাপের একটি রূপরেখা দাঁড় করিয়েছেন। গতকাল বুধবার এ সব বিষয়ে নিশ্চিত করেন দুদক কমিশনার মো. সাহাবউদ্দিন চুপ্পু।

কমিশন সূত্র জানায়, নির্বাচনকে ঘিরে এ সংলাপের প্রতিপাদ্য বিষয় ঠিক করা হয়েছে, উপযুক্ত ব্যক্তি নির্বাচন করবো, দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়বো। এ সংলাপের প্রাথমিক বাজেট এবং কলাকৌশলও নির্ধারণ করেছে দুদকের সদর দপ্তর।
নির্বাচনে কালো টাকার ছড়াছড়ি বন্ধ, দুর্নীতিবাজদের ভোট দিতে জনগণকে নিরুৎসাহিত করা, প্রার্থীদের কাছ থেকে ভোটের বিনিময় অর্থনৈতিক সুবিধা না নেয়া এবং দুর্নীতিমুক্ত নির্বাচনের পরিবেশ তৈরিতে মানুষকে সচেতন করতে এ সংলাপের আয়োজন করছে রাষ্ট্রীয় দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাটি। দেশব্যাপি দুদকের এ সংলাপে দুর্নীতির বিভিন্ন শাস্তির কথাও তুলে ধরা হবে।

গতকাল দুপুরে দুদক কমিশনার মো. সাহাবউদ্দিন চুপ্পু বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে নানারকম দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যায়। দুদক সংলাপ মূলত সচেতনতামূলক একটি প্রকল্প। দুদকের অন্যতম প্রধান এ নির্বাহী বলেন, নির্বাচনকে ঘিরে দুর্নীতির বিষয়ে প্রার্থী ও ভোটারদের সচেতন করতেই মূলত এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দুর্নীতি প্রতিরোধে দুদকের এ সংলাপের পরিকল্পনা দেশে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে তিনি মনে করেন।

সূত্র জানায়, দুদক সংলাপ’র জন্য সংস্থাটি প্রাথমিক ব্যয় নির্ধারণ করেছে ১১ লাখ টাকা। একই সাথে রাষ্ট্রীয় টিভি ও বেতারে এ সংলাপটি সম্প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। দুদক সূত্র জানায়, শিগগিরই প্রধান কার্যালয় থেকে দেশব্যাপি এ সংলাপের আয়োজন করতে দুদকের সমন্বিত ২২টি জেলা কার্যালয়ে চিঠি দেয়া হবে। সমন্বিত কার্যালয়গুলোর তত্ত্বাবধানে বিভিন্ন জেলায় দুদক সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *