দৌলতপুর ইউএনও অফিসে যুবলীগের তালা : ইউএনওকে আল্টিমেটাম

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে স্থানীয় যুবলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা। যুবলীগের সভার জন্য হলরুম বরাদ্দ না পাওয়ায় তারা গতকাল সোমবার বেলা ২টার দিকে ইউএনও’র কার্যালয়ের সকল কর্মচারীকে তাদের কক্ষ থেকে বের করে দিয়ে প্রতিটি রুমে তালা ঝুলিয়ে দেয়। ঘটনার সময় ইউএনওসহ অন্য কর্মকর্তারা অফিসের বাইরে ছিলেন। যুবলীগ নেতাকর্মীরা ইউএনওকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দৌলতপুর ছাড়ার আল্টিমেটাম দিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও উপজেলা পরিষদের কর্মচারীরা জানান, দৌলতপুর উপজেলা যুবলীগের একটি অংশ (মাহবুবুল আলম হানিফ সমর্থক) উপজেলা পরিষদ হলরুমে তাদের দলীয় সভা করার জন্য ইউএনও অফিসের কর্মচারীদের কাছে চাবী চায়। ইউএনও’র অনুমতি ছাড়া কর্মচারীরা হলরুমের চাবি দিতে অস্বীকার করলে যুবলীগ নেতা ছাদিকুজ্জামান সুমনের নির্দেশে যুবলীগকর্মীরা ইউএনও’র কার্যালয়ের সকল কর্মচারীকে তাদের কক্ষ থেকে বের করে দিয়ে প্রতিটি রুমে এবং ভবনের মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয়। ওই ভবনের ভেতরে উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়সহ উপজেলা প্রকৌশলী, পিআইও অফিস রয়েছে। এরপর উপজেলা পরিষদের সকল অফিস জোর করে বন্ধ কয়ে দেয় যুবলীগকর্মীরা।

ইউএও অরুন কুমার বলেন, আমি ঘটনার সময় বাইরে ছিলাম। তারা পূর্ব অনুমতি না নিয়ে হলরুম ব্যবহার করতে চাইলে কর্মচারীরা হলরুম খুলে দিতে অস্বীকার করায় এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তিনি আরো জানান, এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে হলরুম খুলে না দেয়ার প্রতিবাদে যুবলীগের নেতাকর্মীরা তাৎক্ষণিক পথসভা থেকে ইউএনও অরুন কুমারকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দৌলতপুর ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ইউএনও অরুন কুমার দৌলতপুর ছেড়ে না গেলে আজ মঙ্গলবার থেকে কোনো অফিস আদালত খুলতে দেয়া হবে না বলে হুশিয়ার করে দেয়া হয়। সেখানে বক্তব্য রাখেন, যুবলীগ নেতা ছাদিকুজ্জামান সুমন, সরদার আতিয়ার আতিক, কাদের, জামিরুল বাবু প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *