দেশ বিদেশের টুকিটাকি : ঈশ্বরদীতে দুই ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার

ঢাবি ভিসি নিয়োগে আরেফিন সিদ্দিকসহ জনের নাম প্রস্তাব

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ভাইস চ্যান্সেলর- ভিসি পদের জন্য তিন জনের নাম প্রস্তাব করেছে সিনেট। এরা হলেন- বর্তমান ভিসি অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, অধ্যাপক কামাল উদ্দিন, অধ্যাপক মো. আবদুল আজিজ। শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানিয়েছে সিনেটের একটি সূত্র। এরআগে রোববার ঢাবির রেজিস্টার গ্র্যাজুয়েট ১৫ জন শিক্ষকের এক রিট আবেদন শুনানি শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের জন্য ডাকা সিনেটের বিশেষ সভা স্থগিত করেছিলেন হাইকোর্ট। পরবর্তীতে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত গতকাল শনিবারে ডাকা সিনেটের বিশেষ সভা করতে বাধা নেই বলে আদেশ দেন। একই সাথে ৩০ জুলাই পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে বিষয়টি শুনানির নির্দেশ দেন চেম্বার বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

 

ঈশ্বরদীতে দুই ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার: পাবনার ঈশ্বরদীতে অভিযান চালিয়ে দুই ভুয়া ডিবি পুলিশকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ডিবি পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃতরা ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে ডাকাতির কাজে জড়িত ছিলো। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার বিকেলে শহরের পশ্চিম টেংরীর রেলকলোনী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই ২ ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো যশোর বাঘা উপজেলার গোয়ালগাঁও এলাকার হাবিব প্রাং এর ছেলে কোরবান আলী (২৭) ও ঈশ্বরদী শহরের কাচারীপাড়া এলাকার মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে ইব্রাহিম হোসেন (২৮)। ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ আজিম উদ্দিন জানান, গতকাল শনিবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

 

মামেয়েকে নির্যাতন করে মাথা ন্যাড়া

স্টাফ রিপোর্টার: শালিসের নামে সদ্য এসএসসি পাস এক ছাত্রী ও তার মাকে পিটিয়ে নির্যাতন এবং মাথা ন্যাড়া করে দেয়ার অভিযোগ ওঠেছে বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকির বিরুদ্ধে। গত শুক্রবার রাতে বগুড়া সদর থানায় মামলাও করেছেন নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থীর মা। গত শুক্রবার বিকেলে বগুড়া পৌরসভার ৪, ৫, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকির চকসুত্রাপুর এলাকার বাসায় ওই নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। ওই সময় কাউন্সিলের মা, ছোট বোনসহ তার লোকজন এই নির্যাতনে অংশ নেয়। শনিবার ভোররাত পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে কাউন্সিলরের ছোট বোন জামাইসহ চার যুবককে গ্রেফতারও করেছে সদর থানা পুলিশ।

 

গুরুদাসপুরে পানিতে ডুবে ভাইবোনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: নাটোরের গুরুদাসপুরের বিয়াঘাট ইউনিয়নের বাবলাতলা গ্রামে পানিতে ডুবে চার ভাইবোনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির পাশের ডোবা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই শিশুরা হলো- বাবলাতলা গ্রামের শিমুল মোল্লার মেয়ে সন্ধ্যা (৮) ও ছেলে রাব্বী (৪) এবং শিমুলের সহোদর মিন্টু মোল্লার মেয়ে মেঘলা (৭) ও রাব্বানী (৪)। বিকেলে ওই চার শিশু একসাথে খেলছিলো। সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে না আসায় তাদের খুঁজতে থাকে স্বজনরা। এর একপর্যায়ে রাত ৮টার দিকে বাড়ির পাশের ডোবায় একজনের লাশ ভাসতে দেখা যায়। এরপর ডোবায় গ্রামের লোকজন খোঁজা শুরু করলে একে একে চার ভাইবোনের লাশ পাওয়া যায়। বিয়াঘাট ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে গুরুদাসপুর থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস বলেন, মৃত চার শিশু একই পরিবারের। তারা আপন চাচাতো ভাই-বোন।

 

পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ : অন্তবর্তীকালীন আব্বাসী

মাথাভাঙ্গা মনিটর: পাকিস্তানে পদত্যাগী প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের ভাই শাহবাজ শরীফকে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সমর্থন দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে ক্ষমতাসীন পিএমএল-এন। গতকাল শনিবার নওয়াজ শরীফের নেতৃত্বে বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এদিকে শাহবাজ পার্লামেন্টে নির্বাচিত হওয়ার আগ পর্যন্ত জ্বালানি মন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসীকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিবেচনা করছে ক্ষমতাসীন দল। পার্লামেন্টে পিএমএল-এন বড় ব্যবধানে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হওয়ায় কোনোরকম বিঘ্ন ছাড়াই শাহবাজকে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করতে পারবে। ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে নওয়াজ খানের ফাঁকা হওয়া আসনে উপনির্বাচনে অংশ নেবেন শাহবাজ যা পিএমএল-এন এর শক্ত ঘাটি বলে খ্যাত। নওয়াজের পদত্যাগ পরবর্তী সভায় সম্মত হওয়া রূপরেখা অনুযায়ী বর্তমানে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করা শাহবাজকে পাঞ্জাব অ্যাসেম্বলির আসন ত্যাগ করতে হবে। তার স্থলে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন পাঞ্জাবের শুল্ক মন্ত্রী মুজতবা সুজাউর রহমান।

 

উত্তর কোরীয় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ঠেকানোর সাধ্য নেই যুক্তরাষ্ট্রের!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুক্তরাষ্ট্রের ভূখণ্ডে পারমাণবিক ক্ষেপাণাস্ত্র হামলার সামর্থ অর্জনের দাবি করেছে উত্তর কোরিয়া।  কিন্তু সমাজতান্ত্রিক এ দেশের হামলা থেকে আত্মরক্ষা করার মতো প্রস্তুতি ও সাধ্য নেই বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশ আমেরিকার। এক প্রতিবেদনে উত্তর কোরিয়া সাফল্য ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তুতির তথ্য বিশ্লেষণ করে এ কথা বলা হয়েছে। এতে বলা হয়, উত্তর কোরিয়া সর্বশেষ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর পর দেশটির নেতা কিম জং উন বলেছেন, এ পরীক্ষার মাধ্যমে প্রমাণ হয়েছে যে যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখণ্ডের পুরোটাই এখন তাদের হামলার আওতায় এসে গেছে। বিশ্লেষক জোনাথন মার্কাস বলছেন, উত্তর কোরিয়ার এ ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা বা ক্ষমতা যা-ই হোক না কেন- এতে কোনো সন্দেহ নেই যে উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অব্যাহতভাবে উন্নতি করে চলেছে।

 

প্লিজ আসুন আমার মুখে একটি অজগর সাপ!

মাথাভাঙ্গা মনিটর: সাপটি তার ঘাড় জড়িয়ে ছিলো এবং নাক কামড় দিয়ে ধরে রেখেছিলো। ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ওহায়ো অঙ্গরাজ্যে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ওই ঘটনার পর আক্রান্ত নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়। তবে তার জীবন ঝুঁকিতে নেই বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। জরুরি সেবার ৯১১ নম্বরে ফোন করে ৪৫ বছর বয়সী ওই নারী অপারেটরকে বলেন, প্লিজ আসুন! আমার মুখে একটি অজগর সাপ আটকে রয়েছে! ৫ ফুট ৫ ইঞ্চির একটি সাপ তাকে জড়িয়ে ধরেছে এবং তার নাকে কামড় দিয়েছে। পরে দমকলবাহিনীর কর্মীরা এসে সাপটির মাথা কেটে ওই নারীকে উদ্ধার করে। দ্রুত একটি অ্যাম্বুলেন্স এসে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

 

শারীরিক নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন অক্ষয়

মাথাভাঙ্গা মনিটর: বলিউডের খিলাড়ি অভিনেতা অক্ষয় কুমারকে এখন পর্দায় বড় বড় সব খলনায়ককে ধরাশায়ী করতে দেখা যায়। কিন্তু তায়কান্দোতে ব্ল্যাক বেল্ট পাওয়া এই অভিনেতাই নাকি একবার শারীরিক নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন। তখন অবশ্য অক্ষয়ের বয়স খুব কম ছিলো। সম্প্রতি তিনি একটি অনুষ্ঠানে শৈশবে শারীরিকভাবে নিপীড়িত হওয়ার অভিজ্ঞতার কথা জানান। মুম্বাইয়ে মানব পাচারবিষয়ক একটি আন্তর্জাতিক সেমিনারে অংশ নিয়েছিলেন অক্ষয়। সেখানেই তার ছয় বছর বয়সের এক ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা জানান তিনি। এই বস তারকা বলেন, একবার লিফটে করে এক প্রতিবেশীর বাসায় যাওয়ার সময় লিফট ম্যান তাকে শারীরিকভাবে নিপীড়ন করেন। তার শরীরের স্পর্শকাতর জায়গায় স্পর্শ করেন সেই লোক। ছোটবেলা থেকেই মা-বাবার সাথে অক্ষয়ের সম্পর্ক বেশ সহজ। তাই সেদিন কোনো সংকোচ না করেই অভিভাবকদের এই ঘটনার কথা জানাতে পেরেছিলেন। পরে সেই লিফটম্যান একই রকম এক আরেকটি ঘটনায় ফেঁসে যান। তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *