দেশে গণতন্ত্রের খোলস আছে প্রাণ নেই : আকবর আলী খান

স্টাফ রিপোর্টার: সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা আকবর আলি খান বলেছেন, দেশে গণতন্ত্রের খোলস আছে, প্রাণ নেই। সাংসদেরা রাষ্ট্রপতি নির্বাচন করেন। কিন্তু কোনো সঠিক সিদ্ধান্ত দেয়ার ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির নেই। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) ইয়ুথ এনগেজমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট (ইয়েস) সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের বৈকালিক অধিবেশনে তিনি এসব কথা বলেন। তরুণ সমাজকে দুর্নীতিবিরোধী চেতনায় উদ্বুদ্ধ ও সম্পৃক্তকরণে টিআইবি পরিচালিত একটি কর্মসূচি হলো ইয়েস। গত বুধবার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে ওই সম্মেলন শুরু হয়েছে। গণতন্ত্র, সুশাসন ও তারুণ্য শীর্ষক ওই অধিবেশনে মূল বক্তা হিসেবে দেয়া বক্তব্যে আকবর আলি খান বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্রের খোলস আছে, প্রাণ নেই। আমরা যেসব সংসদ সদস্যকে নির্বাচিত করে পাঠাই, সেখানে তাদের যা বলে দেয়া হয়, সেই মতো কাজ করে। তিনি বলেন, গণতন্ত্রের বিকল্প যা আছে, তা গণতন্ত্রের চেয়েও খারাপ। তিনি বলেন, সামরিক শাসনামলে ব্যাপক দুর্নীতি ছিলো। দুর্নীতি এখনো আছে। এখন দুটো কথা বলতে পারি। কিন্তু সামরিক শাসনের আমলে তা বলা যেত না। সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের এ উপদেষ্টা বলেন, বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থা থাকার কারণে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হয়েছে। যদি সামরিক শাসনামলের সাথে তুলনা করি, সামগ্রিকভাবে বাংলাদেশের শাসকেরা যা-ই হোক না কেন, মানুষের সৃজনশীলতার জন্যই এটুকু সম্ভব হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *