দুর্ঘটনায় শিশুসন্তান রক্তাক্ত জখম হওয়ায় স্ত্রীকে বকার পর পিতার বিষপান

 

স্টাফ রিপোর্টার: শিশুসন্তান চলন্ত করিমন থেকে আছড়ে পড়ে রক্তাক্ত জখম হওয়ার দৃশ্য দেখে স্ত্রীকে বকাবকির পর নিজে বিষপানে আত্মহত্যার অপচেষ্টা চালিয়েছেন জয়রামপুর স্টেশনপাড়ার জান্নাত আলী। তাকে ও তার ৭ বছর বয়সী শিশু সন্তান পারভেজকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা দামুড়হুদার জয়রামপুর স্টেশনপাড়ার জান্নাত আলীর বাড়ির পাশে শ্যালোইঞ্জিনচালিত করিমন রাখা ছিলো। শিশু পারভেজ করিমনে ওঠে খেলছিলো। এক পর্যায়ে চালক করিমনটি চালাতে শুরু করে। চলন্ত করিমন থেকে লাফ দিয়ে আছড়ে পড়ে শিশু পারভেজ। রক্তাক্ত জখম হয়। পিতা জান্নাত তার রক্তাক্ত সন্তান দেখে স্ত্রীকে বকাবকি শুরু করে। ছেলে করিমনে উঠলো কেনো তাকে ঠেকানো হলো না, কেন চোখে চোখে রাখা হলো না। অতোটুকু ছেলের ওই হাল কি সহ্য করা যায়? এসব বলে স্ত্রীকে বকাবকি শুরু করে। এক পর্যায়ে জান্নাতের পিতা হায়দার আলী তার ছেলেকে বকাবকি শুরু করে। অভিমানে জান্নাত ঘরে থাকা ওস্তাদ নামক কীটনাশক পান করে। তাকে ও তার শিশু সন্তানকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে। জান্নাতের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

Leave a comment

Your email address will not be published.