দামুড়হুদা বিষ্ণুপুরের বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা : অভিযুক্তের দাবি ডিএনএ পরীক্ষার

 

 

মোটা অঙ্কের টাকা ও জমির বিনিময়ে মীমাংসার দাবি মেয়ের পরিবারের

দামুড়হুদা অফিস:দামুড়হুদা উপজেলার বিষ্ণুপুর গ্রামের বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীএক কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী হওয়ার কারণে ঘটনার নেপথ্য ব্যক্তিকে শনাক্তকরণ নিয়ে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়। অপরদিকে অভিযুক্ত ব্যক্তি নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ডিএনএ পরীক্ষার দাবি জানিয়েছেন। আর মেয়ে পক্ষ অভিযুক্তের এ দাবিকে আমলে না নিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা ও জমির বিনিময়ে মীমাংসার চেষ্টা চালাচ্ছে।

গ্রামবাসীসূত্রে জানা গেছে, বিষ্ণুপুর গ্রামের আয়ুব আলীর বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়ে বন্যা (১৪) অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে। আর তার এ অবস্থার জন্য সে গ্রামের লাল চাঁদের ছেলে ইসলামকে (১৭) দায়ী করছে। অথচ ইসলাম ও তার পরিবার বন্যার আনা এমন অভিযোগকে মানতে চাচ্ছেন না কিছুতেই। তারা দাবি করছেন বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী একজন মানুষের কথা বিশ্বাস না করে আগে ঘটনার সত্যতা যাচাই করা হোক। তারপর যদি ইসলাম আসলেই দোষী সাব্যস্ত হয় তবে তারা ওই মেয়ের সাথেই তার বিয়ে দেবেন। এজন্য অভিযুক্ত ইসলাম ও তার পরিবার ডিএনএ পরীক্ষার জোর দাবি জানিয়েছে।

এদিকে মেয়ের বাবা আয়ুব আলী এ দাবি মানতে চাচ্ছেন না কিছুতেই। তিনি তার মেয়ের কোনো ডাক্তারি পরীক্ষা করাতে রাজি হচ্ছেন না। অথচ তিনি বিষয়টি নিষ্পত্তি করার জন্য নগদ ২ লাখ টাকা ও ১বিঘা জমি দাবি করছেন। এতে গ্রামে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

গ্রামবাসী বন্যার পিতা আয়ুব আলীর এমন সিদ্ধান্তে মোটেও সন্তুষ্ট হতে পারছেনা। তারা বলেছে, যা ঘটেছে তা অবশ্যই নিন্দনীয়। তবে অবশ্যই আসল সত্যকে যাচাই করার সুযোগ দিতে হবে। তা না হলে সুষ্ঠু বিচার সম্ভব হবে না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *