দামুড়হুদায় কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৩ জনের নামে মামলা ॥ আটক ১

দামুড়হুদা/কুড়–লগাছি প্রতিনিধি: দামুড়হুদায় প্রতিবেশী কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে ৩ জনের নামে মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়ের মা রেহেনা খাতুন বাদী হয়ে ৩ জনের নামে মামলা করেছেন। পুলিশ শামীম (২০) নামের এক সহযোগীকে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় গ্রেফতার করেছে। গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার কুড়–লগাছি গ্রামে ওই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে মামলার বাদী পেশকৃত এজহারে উল্লেখ করেছেন।
মামলার এজেহারসূত্রে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কুড়–লগাছি গ্রামের ইউসুফ বাঙালের ছেলে রনি ওরফে অনিক (২১) প্রতিবেশীর এক মেয়ের (১৪) সাথে বছর দেড়েক আগে প্রেমসম্পর্ক গড়ে তোলে। মন দেয়া নেয়ার একপর্যায়ে গত মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে রনি তার দু বন্ধু একই গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে শামীম (২০) এবং ভুট্টর ছেলে আক্তারুলের (১৯) সহযোগিতায় ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে বাড়ির অদূরবর্তী করিম হাজির আমবাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী বিষয়টি তার মাকে জানায়। ওই কিশোরীর মা গতকাল বুধবার বাদী হয়ে ওই ৩ জনকে আসামি করে দামুড়হুদা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দামুড়হুদা মডেল থানার এসআই আসাদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে শামীমকে গ্রেফতার করেন। দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি (তদন্ত) জিএম ইমদাদুল হক জানান, মামলার পর একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে। আজ বৃহস্পতিবার ওই কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা করানোর জন্য ডাক্তারের নিকট নেয়া হবে। পক্ষান্তরে স্থানীয়রা প্রকৃত সত্য উন্মোচনে সুষ্ঠু তদন্তের প্রতি গুরুত্বারোপ করে বলেছে, ঘটনার আড়ালে ঘটনা থাকতে পারে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *