দামুড়হুদার সুবুলপুর ভৈরব নদের ওপর নির্মাণ করা হলো বাঁশের ব্রিজ

তাছির আহমেদ: দামুড়হুদার ব-দ্বীপ খ্যাত সুবুলপুর গ্রামের ঈদগার নিচে ভৈরব নদের ওপর নির্মাণ করা হয়েছে বিশাল এক বাঁশের ব্রিজ। এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের কাঙ্খিত এ স্বপ্ন অবশেষে নিজেরাই পূরণ করে দেখালো। ভৈরব নদের এস্থানে দু পাড়ের গ্রামবাসী ও শ শ শিক্ষার্থীর যাতায়াতের সুবিধার্থে নির্মিত এ ব্রিজটি গতকাল শনিবার বিকেলে উদ্বোধন করা হয়। ব্রিজটির নামকরণ করা হয়েছে মরহুম গোলাম রহমান ব্রিজ। ব্রিজটির উদ্বোধনকালে এলাকাবাসী আনন্দে ফেটে পড়ে। দামুড়হুদা উপজেলার সদর ইউনিয়নের অর্ন্তভূক্ত পাটাচোরা গ্রামবাসীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের সুবুলপুর, কাঞ্চনতলা, আমডাঙ্গা, বাঘাডাঙ্গা ও হাউলী ইউনিয়নের রঘুনাথপুর ও পুরাতন বাস্তুপুর গ্রামবাসীর আন্তরিক সহযোগিতায় প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে এ বাঁশের ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়। ২৫০ ফুট দীর্ঘ আর ৫ ফুট প্রস্থ এ ব্রিজটি নির্মাণ করতে সময় লেগেছে ১৬ দিন। পাটাচোরা গ্রামের মনোহার মল্লিক,আবু বক্কর,হুরমত আলী, মোশারফ হোসেন মুসা এবং সুবুলপুর গ্রামের শুকর আলী, আব্দুস সালাম ও রঘুনাথপুর গ্রামের বাবর আলীর সমন্বয়ে গঠিত কমিটি গ্রামবাসীর সহযোগিতাই এ ব্রিজটি নির্মাণ করে। গতকাল বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে ব্রিজটি উদ্বোধন করেন পাটাচোরা গ্রামের প্রবীণ ব্যক্তি মনোহার মল্লিক। পাটাচোরা মাধ্যমিক স্কুলের প্রধান শিক্ষক শাহাজান আলী বলেন, স্কুলে মোট ৪৫৫ ছাত্রছাত্রীর মধ্যে প্রায় ৩০০ শিক্ষার্থী সুবুলপুর, কাঞ্চনতলা, আমডাঙ্গা, বাঘাডাঙ্গা, রঘুনাথপুর ও পুরাতন বাস্তুপুর গ্রামের। তাদের একমাত্র যাতায়াতের পথ এটি। এ সব শিক্ষার্থীরা এযাবত নৌকায় পারাপার হয়ে স্কুলে আসা-যাওয়া করতো। গ্রামবাসীর প্রচেষ্টায় ব্রিজটি নির্মিত হওয়ায় শিক্ষার্থীদের অনেক দিনের কষ্ট লাঘব হলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *