দামুড়হুদার জয়রামপুরে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনার প্রথম বার্ষিকী আজ

স্বজনহারা পরিবারগুলোর দুঃসহ যন্ত্রণা
স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার জয়রামপুরে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ১৩ জন নিহত ও ১২ জন আহতের ঘটনার প্রথম বার্ষিকী আজ। গত বছরের এ দিনে দ্রুতগামী ট্রাকের সাথে নির্মাণ শ্রমিকবাহী আলমসাধুর মুখোমুখি সংঘর্ষে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।
যারা নিহত হয়েছেন, তাদের পরিবারে সদস্যরা দুঃসহ স্মৃতি যন্ত্রণা নিয়ে বেঁচে আছে এবং যারা বেঁচে আছেন, তাদের শরীরে অসংখ্য ক্ষতের কারণে কাজের ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেছেন। ওই ঘটনায় নিহতদের স্মরণে আজ সোমবার বিকেলে হতাহতদের নিজ গ্রাম দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর মদনা ইউনিয়নের বড় বলদিয়া গ্রামে শোকসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। এদিকে আলোচিত ঘটনায় অভিযুক্ত চালক রাজীব ও হেলপার জুয়েল রানা নি¤œ আদালতে আত্মসমর্পণ করার পর জেলা ও দায়রা জজ আদালত থেকে জামিনে রয়েছেন। এই ঘটনায় দামুড়হুদা মডেল থানার এসআই মেজবাহুর রহমান বাদী হয়ে চালক ও হেলপারের নামে মামলা দায়ের করেন। একই থানার এসআই আমজাদ হোসেন গত বছরের ৩০ অক্টোবর চালক রাজীব ও হেলপার জুয়েল রানাকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। আগামী ৪ এপ্রিল মামলার চার্জ শুনানির দিন ধার্য্য করা হয়েছে।
এদিকে দুর্ঘটনা কবলিত ট্রাক চুয়াডাঙ্গা-ট-১১-০৫৮৮ ঘটনার দিন পুলিশ জব্দ করে থানায় নিলেও পরবর্তীতে ট্রাকটির মালিক চুয়াডাঙ্গা শহরের হাজি আলাউদ্দিন রতন গত ১৮ মে আদালত থেকে ট্রাকটিকে নিজ জিম্মায় নেন। বহুল আলোচিত ওই দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, ইজ্জত আলী, আব্দার রহমান, বিল্লাল হোসেন, আকুব্বার আলী, নাজির হোসেন, শান্ত হক, হাফিজুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, বিল্লাহ হোসেন, লালচাঁদ আলী, জজ মিয়া ও শাহীন আলী । আহতরা হলেন, তরিকুল ইসলাম, আতিকুল হক, জিয়াউর রহমান, আজিবর রহমান, সোরাবউদ্দিন, আলতাফ হোসেন, নূর ইসলাম, গাজীউর রহমান, শফিকুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম, সুমন আলী ও লালচাঁদ আলী।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *