দামুড়হুদার চারুলিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ চলাকালীন জোরপূর্বক মাইক বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদার চারুলিয়া গ্রামে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ চলাকালীন নাটুদহ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক চারুলিয়া গ্রামের সোহরাব হোসেন তার সাঙ্গপাঙ্গরা জোরপূর্বক মাইক বন্ধ করে দেয় বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদসহ নিন্দা জানিয়েছেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি চুয়াডাঙ্গা-২ নির্বাচনী এলাকা থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নজরুল মল্লিক। তিনি এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, গতকাল বুধবার চারুলিয়া ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাত আলীর নেতৃত্বে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ মাইকে প্রচার করা হচ্ছিলো। এরই এক পর্যায়ে বিকেল ৫টার দিকে বিএনপি থেকে আসা নব্যযুবলীগ নামধারী সোহরাব হোসেনের নেতৃত্বে কয়েকজন জোরপূর্বক প্রচার মাইক বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপারকে অবহিত করা হয়। তিনি আরও বলেছেন, বিকেলে আমি চারুলিয়া গ্রামে যায়। ওখানে দামুড়হুদা মডেল থানার ওসির হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। পরে আমি ওখানে পথসভা করি। তিনি প্রশ্ন তুলে বলেছেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাষণ বন্ধ করে দেয় তারা কী আসলেই আওয়ামী লীগ করে, নাকি আওয়ামী লীগের বিরোধী শক্তির এজেন্ট হিসেবে কাজ করছে তা খতিয়ে দেখতে হবে। দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আকরাম হোসেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ যারা বন্ধ করেছে তারা জামায়াত-বিএনপির এজেন্ট। তারা আওয়ামী লীগ পরিবারের কেউ হতে পারে না। কাজটি খুবই নিন্দনীয় এবং জঘন্যতম অপরাধ। এ কাজের সাথে কারা কারা জড়িত সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *