দামুড়হুদার চাঁদপুরে গৃহবধূ ধর্ষণের অপচেষ্টা : জরিমানার ২০ হাজার টাকা নিয়েও টালবাহানা?

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদার উত্তর চাঁদপুরে গৃহবধূ ধর্ষণ অপচেষ্টা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগে অভিযুক্তরা হলো- উত্তর চাঁদপুর গ্রামের মদন কুমারের ছেলে বিল্লাল (২২), একই গ্রামের সামাদের ছেলে রাজন (২৩), মসলেমের ছেলে ইব্রাহিম (১৮) এবং শুকর আলীর ছেলে শাহিন (২৫)। অভিযোগের প্রেক্ষিতে সালিসের আয়োজন করা হয়। সালিসে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে তা মাতবরদের কাছেই রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্রে জানা জানা গেছে, রাজমিস্ত্রির স্ত্রী তার স্বামীর অবর্তমানে গত রোববার রাতে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত দেড়টার দিকে ৪ লম্পট ঘরের বেড়া কেটে প্রবেশ করে গৃহবধূর গলায় ধারালো অস্ত্র ধরে জোরপূর্বক ধর্ষণ করতে যায়। এতে অস্ত্রের কোপে নুরজাহান আহত হয়। গৃহবধূ লম্পটদের হাত থেকে বাঁচতে এক পর্যায়ে চিৎকার-চেঁচামেচি করতে থাকে। তার আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে লম্পটরা তাকে ছেড়ে পালিয়ে যায়। সকালে ঘটনা জানাজানি হলে গৃহবধূর স্বামী লম্পটদের নামে মামলা করতে যাওয়ার পথে লম্পটদের নিকটাত্মীয় গ্রামের কতিপয় মাতবর প্রহসনের বিচারের নামে অভিযুক্ত লম্পটদের ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। তাও আবার রাস্তার উন্নয়নের কথা বলে নিজেরা ভাগ বাটোয়ারা করে নিচ্ছে বলে অভিযোগ। প্রতিবেদক তাৎক্ষণিক মানবাধিকার (আসক) সভাপতি ফজলুর রহমানকে বিষয়টি জানালে তিনি ঘটনাস্থলে দ্রুত ছুটে যান এবং ঘটনার বিস্তারিত শুনে গৃহবধূর পরিবারকে আইনি সহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাজমিস্ত্রিকে সাথে নিয়ে দামুড়হুদা মডেল থানায় অভিযুক্ত লম্পটদের বিরুদ্ধে একটি অপহরণ ও ধর্ষণ অপচেষ্টা মামলার প্রস্তুতি চলছিলো।

Leave a comment

Your email address will not be published.