দামুড়হুদার কালিয়াবকরির অপহৃত সুমন মুক্তিপণ দিয়ে মুক্ত

 

তৌহিদ তুহিন: দামুড়হুদার কালিয়াবকরির শহিদুল ইসলামের ছেলে সুমনকে (২৬)  অপহরণের সাতদিন পর মুক্তিপণ নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে অপহরকচক্র। গত বৃস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকা গাবতলীর নিকটবর্তী এলাকার একটি সড়কে সুমনকে  ছেড়ে দেয় অপহরকচক্রের সদস্যরা। গাবতলী থেকে সুমন চুয়াডাঙ্গার কোচ পূর্বাশা পরিবহনযোগে ভোর চারটার দিকে দামুড়হুদা পূর্বাশা কাউন্টারে এসে পৌঁছায়। গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে সে তার বাড়িতে ফেরে। এ কয়েক দিনের বিভিষীকাময় কাহিনী জানতে চাইলে সুমন জানায়, আমি এ বিষয়ে কিছু বলতে পারবো না। আমাকে পুলিশ প্রশাসন ও মিডিয়াকে তথ্য দিতে নিষেধ করা হয়েছে। এলাকাবাসী জানায়, সুমনকে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণের বিনিময়ে ছেড়ে দিয়েছে অপহরকচক্র। কিন্তু তার পরিবার মুক্তিপণ দেয়ার কথা অস্বীকার করে। এলাকাবাসীর ধারণা অপহরকচক্রের ভয়ে মুখ খুলছে না সুমনের পরিবার।

জানা গেছে, অপহরণ করেই মাইক্রোবাসে উঠিয়ে সুমনকে  হাত, মুখ ও চোখ বাঁধা অবস্থায় নিয়ে যায় অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে একটি কক্ষে আটকে রাখা হয়। রুমের জানালা দরজা সবসময় বন্ধ ছিলো। তাছাড়াও সুমনকে নজরদারির জন্য অপহরকচক্রের দুজন সদস্য সবসময় পাহারায় থাকতো। উল্লেখ্য গত ৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় রাস্তা থেকে সুমনকে অপহরণ করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *