দর্শনায় এনএসআই কর্তৃক জব্দকৃত সার নেয়া হলো দামুড়হুদায়

0
34

 

দর্শনা অফিস: জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা কর্তৃক জব্দকৃত সাড়ে ৩শ বস্তা ইউরিয়া সার নেয়া হলো দামুড়হুদার আবু হানিফ টেডার্সে।

জানা গেছে, ইরি-বোরো মরসুমে সারের চাহিদা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পায়। এ চাহিদা পূরণসহ অতিরিক্ত মূল্যে সার বিক্রির লক্ষ্যে অনেক সার ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে অবৈধভাবে ইউরিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের সার মজুদ করার অভিযোগ রয়েছে। এরকমভাবে ইউরিয়া সার মজুদ রাখা হয় দর্শনা বাসস্ট্যান্ডের কৃষান ট্রেডার্সের গোডাউনে। কোন কোন অসাধু সারডিলার গোপনে সার মজুদ করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। সুযোগ সন্ধানী মুনাফালোভী ওই সকল ডিলার বাজারে সার সঙ্কট সৃষ্টির মাধ্যমে বেশি দামে সার বিক্রি করে থাকে। এ ধরনের অভিযোগ রয়েছে কার্পাসডাঙ্গা বসু টেডার্স, দামুড়হুদার আবু হানিফ টেডার্স, দর্শনার কৃষান টের্ডার্সসহ বিভিন্ন সারডিলারের বিরুদ্ধে। অভিযোগ উঠেছে, বেশি দামে সার বিক্রির জন্য দামুড়হুদার আবু হানিফ ট্রেডার্স থেকে কার্পাসডাঙ্গা বসু ট্রেডার্সের দুর্গাচরণ বসু বরুণ প্রায় সাড়ে ৩শ বস্তা ইউরিয়া সার কিনে হাজি নজরুল ইসলামের কাছে বিক্রি করেন। এতো পরিমাণ সার বিক্রির অনুমোদন নেই কৃষান টেডার্স কর্তৃপক্ষের। নিয়ম বহির্ভূতভাবে প্রচুর পরিমাণ সার গোডাউনজাতের গোপন তথ্যের ভিত্তিতে গত বুধবার বেলা ১১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা এনএসআই’র উপপরিচালক আবু জাফর ইকবালের নেতৃত্বে সহকারী পরিচালক আক্তারুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালান কৃষান ট্রেডার্সের গোডাউনে। এনএসআই’র টিম গোডাউন থেকে জব্দ করে সাড়ে ৩শ বস্তা ইউরিয়া সার। যার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ৩ লাখ টাকা। অবৈধপন্থায় সার গোডাউনজাতের অপরাধে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফরিদুর রহমানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত কৃষান ট্রেডার্সের মালিক হাজি নজরুল ইসলামকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে জব্দকৃত সার নেয়া হয়েছে দামুড়হুদার আবু হানিফ ট্রেডার্সে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here