তাড়িয়ে ধরে কুপিয়ে জখমের জের : হাসপাতাল কম্পাউন্ডের চা দোকান ও অটো ভাঙচুর : দোকানিসহ দুজনকে মারপিট

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল বাউন্ডারির ভেতরের একটি চা দোকান ও দোকানের সামনে থাকা একটি অটো আংশিক ভাঙচুরসহ দুজনকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। গতপরশু মধ্যরাতে শান্তিপাড়ার অটোচালক সুরুজ ও তার মামা চা দোকানি সদর আলীকে মারপিট করা হয়। সুরুজকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গতপরশু সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা শান্তিপাড়া মোড়ের অদূরে তাড়িয়ে ধরে সাদেক আলী মল্লিকপাড়ার রমজান আলীর ছেলে খসরুকে কুপিয়ে জখমের জের ধরে ওই রাতেই হাসপাতাল কম্পাউন্ডের চা দোকানি ও দোকানির ভাগ্নে অটোচালককে মারপিট করা হয় বলে অভিযোগ। অবশ্য হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সুরুজ বলেছে, দোকানে বসেছিলাম, কয়েকজন এসে হামলা চালিয়ে আমার অটো ও চা দোকান ভাঙচুর করে। আমাকে ও আমার মামাকে মেরে আহত করে।
অপরদিকে, গতপরশু সন্ধ্যায় তাড়িয়ে ধরে কুপিয়ে জখম করা খসরুকে পরশু রাতেই চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের উদ্দেশে নেয়া হয়। শান্তিপাড়ার সুমন তাকে মারপিটের হুমকির পরদিন পরশু বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কয়েক যুবক হামলা চালিয়ে আহত করে। খসরুর সাথে থাকা পলাশপাড়ার রাজু অভিযোগ করে বলে শান্তিপাড়ার আকাশসহ কয়েকজন হামলা চালিয়ে খসরুকে গুরুতর জখম করেছে। ওই রাতেই হাসপাতাল কম্পাউন্ডের চা দোকানে হামলা চালিয়ে আহত করা সুরুজ শান্তিপাড়ার ওই সুমনের ভাই। আর চা দোকানি সদর আলী তাদের মামা। খসরুকে তাড়িয়ে ধরে কুপিয়ে জখমের জের ধরেই মধ্যরাতে হামলা চালানো হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *