ঝিনাইদহে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার: আধিপত্য বিস্তার ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে বিরোধের জের ধরে রোববার বিকালে প্রতিপক্ষ শরিফুল ইসলাম হুমো (৩২) নামে এক যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছে। এ হামলায় তার হাতের দুটি আঙুল কেটে গেছে। গতকাল রোববার বিকেল ৩টার দিকে সদর উপজেলার নলডাঙ্গা পুরানো পুজা মন্দির চত্বরে এ হামলার ঘটনাটি ঘটে। আহত শরিফুল ইসলাম নলডাঙ্গা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। তার বাবার নাম আব্দুস সাত্তার মহুরী। ভিটসর গ্রামে তাদের বাড়ি বলে জানা গেছে। আহত শরিফুল ইসলাম হুমোকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ও পরে যশোর আড়াইশ বেডে পাঠানো হয়েছে।
ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি হাসান হাফিজুর রহমান জানান, গতকাল রোববার বিকেলে শরিফুল ইসলাম নলডাঙ্গা বাজারে কেরামবোর্ড খেলছিলেন। এ সময় প্রতিপক্ষ ইউপি চেয়াম্যান রবিউল উসলাম রবি গ্রুপের লোকজন মোটরসাইকেলে এসে শরিফুলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে ফেলে রেখে যায়। তিনি আরো জানান, এলাকার আধিপত্য বিস্তার ও আসন্ন ইউপি নির্বাচন নিয়ে নলডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা রবিউল ইসলাম রবি ও সাবেক চেয়ারম্যান দুর্বৃত্তদের হাতে নিহত রুহুল বিশ্বাসের ভাতিজা কবিরের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। সেই ঘটনার জের ধরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে ওসি জানান।
উল্লেখ্য, কয়েক বছর আগে নলডাঙ্গার চেয়ারম্যান রুহুল বিশ্বাসকে দুর্বৃত্তরা ঝিনাইদহ শহরের হামদহ এলাকায় কুপিয়ে খুন করে। রুহুল বিশ্বাস হত্যার পর উপনির্বাচনে রবিউল ইসলাম রবি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। রুহুল হত্যা মামলায় রবিকে আসামি করা হয়। মামলাটি এখন আদালতে বিচারাধীন আছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *