ঝিনাইদহের শ্যামনগরে বিরলপ্রজাতির প্রাণি ধরে মেছোবাঘ বলে দাবি

ডাকবাংলা প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ জেলা সদরের ২ নং মধুহাটি ইউনিয়নের শ্যামনগর গ্রাম থেকে গতকাল শুক্রবার বিরলপ্রায় প্রজাতির প্রাণি বাঘডাশা আটক করেছে স্থানীয়রা। আটকের পর তারা বাঘডাশাকে মেছোবাঘ বলে দাবি করে। এ প্রচারে উৎসুক জনতা দেখতে ভিড় জমায়।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসার ডা. জসিম উদ্দিন জানান, জেলার সদর উপজেলার শ্যামনগর গ্রামের ধানক্ষেতে একটি প্রাণি দেখতে পায় গ্রামবাসী। এ সময় তারা প্রাণিটিকে তাড়িয়ে ধরে। এক পর্যায়ে তারা লাঠিসোঁটা দিয়ে প্রাণিটিকে পিটিয়ে আহত করে। আহত প্রাণিটিকে এলাকাবাসী তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করে জেলা প্রাণিসম্পদক কার্যালয়ে নেয়া হয়। চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। প্রাণিটিকে চিকিৎসা শেষে জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম ও সদর পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টুর পরামর্শে স্থানীয় পৌর শিশু পার্কে হস্তান্তর করা হয়েছে। শাদা-কালো ডোরাকাটা প্রাণিটিকে প্রাণি সম্পদের অনেকেই মেছোবাঘ বলে দাবি করেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে।

শ্যামনগর গ্রামের যুবক আহাম্মদ সাগর জানান গ্রামের মানুষ যখন মেছোবাঘটি পেটাতে থাকে তখন তিনি গিয়ে মারতে নিষেধ করলে তারা পেটানো বন্ধ করে। তখন সাগর ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে জানালে তারা মেছেবাঘটি উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *