ঝিনাইদহের শিশুকুঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নিয়োগে আদালতের স্থগিত আদেশ জারি

 

শাহনেওয়াজ খান সুমন: ঝিনাইদহের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিশুকুঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজে অধ্যক্ষ নিয়োগে স্থগিতাদেশ জারি করেছেন আদালত। ঝিনাইদহ সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক জাহিদুল ইসলাম গতকাল মঙ্গলবার এ আদেশ দেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজ কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ১৯৬৮ সালে ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া মহাসড়কের পাশে ক্যাডেট কলেজপাড়ায় শিশুকুঞ্জ স্কুলটি প্রতিষ্ঠিত হয়। পরে ১৯৯৯ সালে স্কুলটি কলেজে উন্নীত হয়। বর্তমানে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আনুমানিক দেড় হাজার শিক্ষার্থী লেখাপড়া করে। এমপিওভুক্ত বেসরকারি এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি পদে রয়েছেন ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের অধ্যক্ষ লে. কর্নেল বেনজির আহমেদ এবং ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্বে রয়েছেন মো. আলী রেজা। কলেজের বর্তমান পরিচালনা পরিষদের সভায় সিদ্ধান্ত না নিয়ে আগের কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত পয়লা ডিসেম্বর স্থানীয় দৈনিক নবচিত্র ও জাতীয় দৈনিক নয়াদিগন্তের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রদান করেন তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. শফিকুল বাসার। এর প্রেক্ষিতে বর্তমান পরিচালনা পরিষদের সদস্য মো. শামীম জোয়ার্দ্দার ও মো. সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে গত ৭ জানুয়ারি ঝিনাইদহ সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলায় কলেজের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ, শহরের মডার্ণমোড়ের মো. খায়রুল বাসারের ছেলে শফিকুল বাসার, কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি, ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের অধ্যক্ষ, যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের কলেজ পরিদর্শককে বিবাদী করা হয়েছেন। মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী আছেন অ্যাডভোকেট বিকাশ কুমার ঘোষ।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়েছে, শিশুকুঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালনা পরিষদের সভাপতিকে ম্যানেজ করে প্রতিষ্ঠানের সেসময়ের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. শফিকুল বাসার অধ্যক্ষ পদে নিজের নিয়োগ প্রাপ্তির জন্য এ ধরনের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রদান করেছেন। এ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিষয়ে কারণ দর্শানো নোটিশ জারি করেছেন বিজ্ঞ আদালত। তারপরও শিশুকুঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজ পরিচালনা পরিষদ নিয়োগ প্রক্রিয়া অব্যাহত রেখেছে। নিয়োগের জন্য ১৫ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার লিখিত/মৌখিক পরীক্ষার দিন ধার্য করা হয়েছে। এ বিষয়ে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত চেয়ে বাদীপক্ষ আবেদন করলে বিজ্ঞ ঝিনাইদহের সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালত নিয়োগে স্থগিত আদেশ জারি করেছেন। আদালতের আদেশে বলা হয়েছে, ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত শিশুকুঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ করা যাবে না।

এ বিষয়ে শিশুকুঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ঝিনাইদহ ক্যাডেট কলেজের অধ্যক্ষ লে. কর্নেল বেনজির আহমেদ বলেন, আদালতের আদেশ এখনও কলেজে পৌঁছেনি। বাদীপক্ষের দাবি ভিত্তিহীন বলে তিনি দাবি করেন। আদালতের আদেশ অমান্য করে নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া হবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, কলেজ পরিচালনা পরিষদ আদালতের আদেশ মেনে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *