ঝিনাইদহের বিআরটিএ অফিসের করুণ অবস্থা : যানবাহনের ডিজিটাল নম্বরপ্লেটে জেলার নামের বানানে ভুল

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহ সদরের আকরাম হোসেন গত বছরের নভেম্বরে মোটরসাইকেলের ডিজিটাল নম্বরপ্লেট (রেট্রো-রিফ্লেকটিভ নম্বার প্লেট) পান। তাতে ঝিনাইদহ’র স্থলে ঝিনাইদাহ লেখা ছিলো। সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) জেলা কার্যালয়ে বিষয়টি জানালেও কোনো সুরাহা হয়নি। ভুল বানানের এই নম্বরপ্লেট নিয়ে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন তিনি। এ রকম প্রায় ৭ হাজার মোটরসাইকেল মালিক নিজ জেলার ভুল বানান নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এছাড়া এ জেলার কিছু মোটরকার ও জিপের নম্বরপ্লেটেরও এ রকম ভুল রয়েছে।

বিআরটিএর ঝিনাইদহ কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের শেষের দিকে জেলায় যানবাহনে ডিজিটাল নম্বরপ্লেট লাগানোর কার্যক্রম শুরু হয়। গত আগস্ট পর্যন্ত ৬ হাজার ৮০০ মোটরসাইকেলের ডিজিটাল নম্বরপ্লেট দেয়া হয়েছে। শুরু থেকেই এসব নম্বর প্লেটে জেলার নাম ভুল বানানে লেখা ছিলো। যানবাহনের মালিকেরা বিষয়টি সংশোধন করতে চাইলেও বিআরটিএর জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তারা বিষয়টি গুরুত্ব দেননি। এ সম্পর্কে মোটরসাইকেল মালিক আকরাম হোসেন বলেন, ভুল বানানের নম্বরপ্লেট নিতে চাইনি। কিন্তু কর্তৃপক্ষ বলেছে, তাদের কিছুই করার নেই। নিজ জেলার নাম ভুল লিখে ঘুরতে লজ্জা লাগে, কিন্তু কী করবো? নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বলেন, এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযোগ জানানো হয়েছিলো। কিন্তু যারা এই প্লেট তৈরির সাথে যুক্ত, তারা বিষয়টি গুরুত্ব দেননি।

এ ব্যাপারে বিআরটিএ’র জেলা কার্যালয়ের পরিদর্শক মো. রাশেদুজ্জামান সাংবাদিককে বলেন, এসব নম্বরপ্লেট ঢাকা থেকে তৈরি হয়ে আসে। সেখানেই বানান ভুল হয়েছে। এটি সংশোধনের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। আশা করছি দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে। জেলা প্রশাসকের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সাধারণ) আবু ইউসুফ মো. রেজাউর রহমান বলেন, জেলার নাম ভুল লেখা ঠিক নয়।

ঝিনাইদহের প্রশাসনের অনেক গাড়িতে এ রকম ভুল রয়েছে, যা শাদা কালি দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে বিআরটিএকে জানানো হয়েছে। শিগগিরই এই ভুল সংশোধনের পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *