ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে গৃহবধূ হত্যার দেড় মাস পর মামলা দায়ের

 

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে গৃহবধূ সুমাইয়া ওরফে সুমি (২০) হত্যার ১ মাস ১৬ দিন পর হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। কালীগঞ্জ থানার এসআই কাজী আবুল খায়ের বাদী হয়ে সুমির স্বামী নয়ন আলী (২৭) ও সুমির মামা আবুল কালামসহ (৪২) অজ্ঞাত ২-৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, নিহত গৃহবধূ সুমাইয়া ওরফে সুমি ঝিনাইদহের দাদপুর গ্রামের ইউনুচ আলীর মেয়ে। গত ১৫ এপ্রিল বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের শুকুর আলীর ছেলে নয়ন আলী তার স্ত্রীকে হত্যা করে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে। পরে নিহত সুমির মামা দাদপুর গ্রামের আসাদ আলী মণ্ডলের ছেলে হত্যার ঘটনা গোপন রেখে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করেন। ইউডি মামলা দায়েরের পর তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে এবং পোস্ট মর্টেমে হত্যার ঘটনা প্রমাণিত হওয়ায় ঘটনার ১ মাস ১৬ দিন পর হত্যা মামলা দায়ের হয়। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ স্বপন কুমার ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উল্লেখ করেছেন সুমিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *