জীবননগর আন্দুলবাড়িয়া তরুণীকে অপহরণ করতে এসে দু অপহরক গ্রেফতার : আদালতে সোপর্দ

জীবননগর ব্যুরো/আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়ায় কনে দেখার আসর থেকে এক তরুণীকে অপহরণ করতে এসে দু অপহরককে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনার পর তরুণীর চাচা আওয়ামী লীগ নেতাকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। গত শনিবার রাতে এ ঘটনায় আটক দুজনকে গতকাল রোববার চুয়াডাঙ্গা সংশ্লিষ্ট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়ার খন্দকার পরিবারের এক তরুণীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো আন্দুলবাড়িয়ার সেলিম উদ্দিন ওরফে দুলালের ছেলে মেহেদী হাসান (১৯)। শনিবার ওই তরুণীকে বিয়ের জন্য দেখতে আসে। পাত্র পছন্দও করে ওই তরুণীকে। পাত্রপক্ষ এ দিন রাতেই বিয়ের আয়োজন করার প্রস্তাব দেয়। এ খবর পেয়ে মেহেদী হাসান অনন্তপুরের আশরাফুল ইসলামের ছেলে মাহফুজকে (২০) সাথে নিয়ে ওই তরুণীর বাড়িতে এসে উপস্থিত হয়। এ সময় তারা পাত্র পক্ষকে ওই তরুণীকে বিয়ে না করার হুমকি দিয়ে তরুণীকে অপহরণের চেষ্টা করে। লোকজন এসময় মেহেদী ও মাহফুজকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। এ ঘটনার পর তরুণীর চাচা আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা পল্লি চিকিৎসক বাড়ি ফেরার পথে হামলার শিকার হন। তাকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। আহত আওয়ামী লীগ নেতাকে চিকিৎসার জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *