জীবননগরে বোনের বিরুদ্ধে ভাইয়ের প্রতারণার অভিযোগ

 

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগরে এক বোনের বিরুদ্ধে জমি ফেরত না দিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগ করা হয়েছে। ভাই শহিদুল ইসলামের অভিযোগ, বোন রাশেদার নামে আদালত হতে পিয়েনশনের মাধ্যমে নেয়া ৩ কাঠা জমি ফেরত না দিয়ে তার সাথে প্রতারণা করছেন। এতে সে তার মাথা গুজার ঠাঁই হারিয়েছেন। তবে বোন তার সাথে প্রতারণা করছেন এমন কোনো প্রমাণ তার নিকট নেই তবে স্বাক্ষী আছে বলে জানিয়েছেন অভিযোগকারী শহিদুল ইসলাম।

জীবননগর শহরের মহানগর দক্ষিণপাড়ার আত্তাব হোসেন মণ্ডলের ছেলে ভ্যানচালক শহিদুল ইসলাম জানিয়েছে, ঘরে স্ত্রী থাকা অবস্থায় তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করেন। এ বিয়ের পর প্রথম সংসার টিকিয়ে রাখতে তিনি তার প্রথম স্ত্রীর নামে ভিটের ৩ কাঠা জমি লিখে দেন। জমি রেজিষ্ট্রি করে দেয়ার পর প্রথম স্ত্রী সুফিয়া খাতুন ওই জমি বিক্রি করে দেয়ার উদ্যোগ নেন। এ অবস্থায় তিনি তার ভিটে জমি ফেরাতে বোন রাশেদাকে ব্যবহার করে আদালতে পিয়েনশনের মামলা দায়ের করেন। বোন রাশেদা বাদি হলেও জমির মূল্যসহ সমস্ত খরচ তিনি বহন করেন বলে তার দাবি। এ মামলায় জমি রাশেদার নামে পাওনা হয়। আদালতের মাধ্যমে সমুদয় জমির টাকা পরিশোধ করেন শহিদুল ইসলাম; কিন্তু দীর্ঘ দিন হয়ে গেলেও কথা মতো বোন রাশেদা শহিদুলকে জমি আর ফেরত দিচ্ছে না। জমি ফেরত না দিয়ে তার সাথে টালবাহানাসহ প্রতারণা করছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

শহিদুল ইসলাম জানান, তার এখন মাত্র ১ কাঠা ভিটে জমি রয়েছে। এ জমিতে তিনি পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করতে পারছেন না। বোন রাশেদাকে ৩ কাঠার মধ্যে ২ কাঠা জমি ফিরিয়ে দিতে বললেও, সে কিসের জমি ফেরত দেবো বলে উড়িয়ে দিচ্ছে। ফলে সে বোন রাশেদার নিকট অসহায় হয়ে পড়েছেন বলে দাবি করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *