জীবননগরে নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছে যুবসমাজ

জীবননগর ব্যুরো: জীবননগর উপজেলায় আশঙ্কাজনকভাবে নেশায় জড়িয়ে পড়ছে তরুণ ও যুবসমাজ। রাজনৈতিক দলের ছত্রছায়ায় থাকা এ সকল তরুণ ও যুবকেরা নেশার টাকা জোগাড় করতে গিয়ে বেপরোয়া হয়ে পড়ছে। ধনী, সম্ভ্রন্ত ও রাজনৈতিক পরিবারের এসব তরুণ-যুবকেরা তাদের পিতা-মাতা কিংবা অভিভাবকদের কোনো প্রকার তোয়াক্কা করতে চাইছে না। অবাধ্য হয়ে পড়ে এসব তরুণ ও যুবকেরা নেশার টাকা জোগাড় করতে মোটরসাইকেল ছিনতাইসহ ছোটখাটো চুরির কাজে জড়িয়ে পড়ছে। গত কয়েক দিনের ব্যবধানে এমন বেশ কয়েকটি ঘটনা চরম ভাবনায় ফেলেছে এ উপজেলার অভিভাবক ও সচেতনমহলকে।

সম্প্রতি বাজারের বিশিষ্ট সারব্যবসায়ী হাজি তবিবুর রহমানের ওপর হামলা করে তার নিকট থেকে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়াকালে হাতেনাতে আটক হয় তেঁতুলিয়া গ্রামের আনিস। সে বর্তমানে জেলহাজতে আটক রয়েছে। সে মাদকাসেবী বলে জানা গেছে। এছাড়াও টিঅ্যান্ডটিপাড়ার আমজাদ হোসেনের বাড়ির জানালার গ্রিল কেটে দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়। চোরচক্র প্রায় ১৮ থেকে ২০ ভরি সোনার গয়না, মূল্যবান কাপড়-চোপড় ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। চুরি হয় হাসপাতালপাড়ার সাইফুল ইসলাম মালিক টগরের বাড়িতে। একের পর এক চুরি ছিনতাই সংঘটিত ও ঘটনার সাথে চেনা মুখের তরুণ যুবকেরা জড়িত থাকতে হতভম্ব হয়ে পড়ছে এলাকাবাসী। তাদের এ চুরির পেছনে যে মরণ নেশা মূলকারণ তা অনেকটা পরিষ্কার হয়ে যাওয়াতে চিন্তিত অভিভাবক ও সচেতনমহল। বিপথগামী এসব তরুণ-যুবকেদের এখনই এ পথ থেকে ফেরাতে না পারলে নতুন প্রজন্মদের নিয়ে তেমন আশার কিছু দেখবে না এ উপজেলাবাসী এমন মতামত সুশিল সমাজের।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *