জরিমানা পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওষুধ চুরির অভিযোগ থেকে রক্ষা পেলেন বিক্রয় প্রতিনিধি

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: জরিমানার টাকা পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওষুধ চুরির অভিযোগ থেকে মুক্ত হলেন ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যাল লিঃ’র আলমডাঙ্গা উপজেলা বিক্রয় প্রতিনিধি গোলাম মোস্তফা। গতকাল হারদীস্থ শিশির অ্যান্ড শিউলী ফার্মেসীতে ওষুধ চুরির সময় তাকে হাতেনাতে আটক করা হয়। পরে সালিসে তিনি অকপটে চুরির কথা স্বীকার করলে তাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
জানা গেছে, ওরিয়ন ফার্মাসিউটিক্যাল লিঃ’র আলমডাঙ্গা উপজেলা বিক্রয় প্রতিনিধি হিসেবে চাকুরি করছেন গোলাম মোস্তফা। গতকাল ১১ ফেব্রুয়ারি দুপুরে তিনি হারদী বাজারে যান অর্ডার গ্রহণের জন্য। সে সময় হারদীস্থ শিশির অ্যান্ড শিউলী ফার্মেসী থেকে বেশকিছু ওষুধ চুরি করার সময় তিনি ধরা পড়ে যান। বিষয়টি জানাজানি হলে শিশির অ্যান্ড শিউলী ফার্মেসীর মালিক জয়ন্ত কুমার বিশ্বাস ও আশপাশের ব্যবসায়ীরা ছুটে যান ঘটনাস্থলে। সে সময় তার পকেট থেকে চুরির হেলথ কেয়ারের স্যানটোজেন ও রোক্যাল ডি ভিটা, স্কয়ারের ফিলওয়েল গোল্ড, ওরিয়নের ফ্রুলাক ও ব্যাকলন ঔষধ বের করা হয়। পরে ওই বিষয়ে এক সালিশ বৈঠক বসে। সালিশে অভিযুক্ত গোলাম মোস্তফা অকপটে চুরির কথা স্বীকার করেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, গত ৩ মাস ধরে প্রায় ৩০ হাজার টাকার ওষুধ তিনি ওই ফার্মেসী থেকে চুরি করেছেন বলে স্বীকার করেছেন। সালিশে তাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তাৎক্ষণিকভাবে জরিমানার টাকা পরিশোধ করা তার পক্ষে সম্ভব না হলে তার সহকর্মী আব্দুল আওয়ালের জিম্মায় তিনি মুক্ত হন। সালিসকারীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হারদী বাজার কমিটির সভাপতি ডিকো খান, সম্পাদক পারভেজ হোসেন রঞ্জু, ডাক্তার ইউনুস আলী প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *