জঙ্গিরা ইসলামের নামে এদেশের মানুষের বিরুদ্ধে ভ্রান্ত যুদ্ধ শুরু করেছে

চুয়াডাঙ্গায় সন্ত্রাস নাশকতা ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে জনমত গঠনের লক্ষ্যে আলোচনাসভায় জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় সন্ত্রাস, নাশকতা ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে জনমত গঠনের লক্ষ্যে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আলোচনাসভার আয়োজন করে জেলা তথ্য অফিস। এতে সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কেএম মামুন উজ্জামান। প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আনজুমান আরা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, জেলা আ.লীগের সহসভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস ও জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদুল ইসলাম।

জেলা তথ্য অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিকের সঞ্চালনায় আলোচনাসভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিবার পরিকল্পনার উপপরিচালক রেজাউল করিম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক এবিএম রবিউল ইসলাম, পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ, সদর উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দসহ আরও অনেকে। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ও জঙ্গিবিরোধী তথ্যবহুল প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন জেলা তথ্য অফিসার আবু বক্কর সিদ্দিক। সভায় বক্তব্য সুধীজনদের মধ্যে রাখেন সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল ইসলাম মালিক, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি আজাদ মালিতা, কেদারগঞ্জ জামে মসজিদের ইমাম মাও. রুহুল আমিন ও টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আজিজুল হক। জনপ্রতিনিধিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র ইকরামুল হক মুক্তা, মহিলা কাউন্সিলর সুলতানা আরা রত্না, শঙ্করচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, সদস্য শওকত মাহমুদ ও কুতুবপুর ইউপি সদস্য রিনা পারভীন।

সভায় প্রধান অতিথি বলেন, ঢাকার হলি আর্টিজানের ঘটনা আমাদের সবাইকে চমকে দিয়েছে। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ বিষয়টি আফগানিস্তান থেকে শুরু হয়েছে। আফগানিস্তানে একসময় রাশিয়াদেরকে ঠেকাতে গিয়ে আমেরিকা যে তালেবান সৃষ্টি করেছিলো, সেই তালেবান থেকেই কিন্তু আমাদের বাংলাদেশে বেশির ভাগ জঙ্গিরাই সেই আফগানিস্তান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে এসেছে। সেখানে যুদ্ধ শেষ হয়ে গেছে। এখন কী করবে? তারা বাংলাদেশে এসে এ দেশের মানুষের বিরুদ্ধে ভ্রান্ত যুদ্ধ শুরু করেছে। যা করেছে তারা ইসলামের নামে। আসলে ইসলাম এ সমস্ত বিষয় সমর্থন করে না। এজন্য জনসচেতনতা প্রয়োজন। সন্তানদের প্রতি লক্ষ্য রাখতে সকলকে আহ্বান জানান তিনি। অনুষ্ঠানটির সার্বিক সহযোইগতায় ছিলেন জেলা তথ্য অফিসের ঘোষক ফারুক আহমেদ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *