চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে সাধারণ ভোটারদের মাঝে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ

স্টাফ রিপোর্টার: একপক্ষ কৌশলে প্রচার করছে ভোট দিতে না গেলে ভোটার আইডি কার্ড বাতিল হয়ে যাবে, অপর পক্ষের জোরালো প্রচারণা, ভোট কেন্দ্রে গেলে জীবন মৃত্যুর ঝুঁকির মধ্যে পড়বে। দু পক্ষের দু রকম প্রচারণায় অধিকাংশ এলাকার সাধারণ ভোটার পড়েছে দোটানায়, তবে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের চিত্র অনেকটাই আলাদা।

বেশ কিছুদিন ধরে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর জোরালো প্রচারণায় অনেকটাই ফুটে উটেছে নির্বাচনী আমেজ। যদিও প্রচারণার সিংহভাগই ছিলো একতরফা। এলাকার সাধারণ ভোটারদের কেউ কেউ এরকমই মন্তব্য করে প্রশ্ন তুলে বলেছেন, বড় দু দলের প্রার্থীদের লড়াই ছাড়া কি আর নির্বাচন জমে? তবুও তুলনামুলকভাবে এ আসনে ভোট পোলের সংখ্যা বেশি হতে পারে।

চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক বর্তমান সংসদ সদস্য হাজি মো. আজগার আলী নৌকা প্রতীক নিয়ে জোরালো প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি মনোনীত পার্টির চুয়াডাঙ্গা জেলা সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম শেখ। তিনি হাতুড়ি প্রতীকের প্রার্থী। পত্র পত্রিকায় বিজ্ঞাপন প্রকাশের পাশাপাশি তিনি প্রত্যন্ত অঞ্চলে ঘুরেছেন। যেখানে নৌকা প্রতীকের পোস্টার লিফলেটে ভরা ছিলো এলাকা, সেখানে হাতুড়ির পোস্টার ছিলো হাতে গোনা। আজ নির্বাচন। সন্ধ্যায় নির্বাচনী ফলাফলের অপেক্ষা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *