চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে রোগী দেখা নিয়ে উত্তেজনা ও হাতাহাতি

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে রোগীর লোকজনের সাথে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সেচ্ছাসেবকদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রোগীর লোকজন কৌশলে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে। এঘটনায় পুলিশ কাউকে আটক না করলেও হাসপাতালে ভীতিকর পরিস্থিতি বিরাজ করে। ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.শামীম কবির জানান, গতকাল শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার কেদারগঞ্জ বাহাদুর পাড়ার করিমের ছেলে নাজমুল হোসেনকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়। পরিবারের লোকজন বলেন, নাজমুল ঘুমের ট্যাবলেট সেবন করেছে তাকে ওয়াশ করতে হবে। প্রথমে নাজমুল ওয়াশ করতে নিষেধ করে। এনিয়ে নাজমুলের পরিবারের লোকজন নিজেরাই হাতাহাতিতে লিপ্ত হয়। রোগীর লোকজনকে বাইরে যেতে বলা হলে তারা জরুরি বিভাগের সেচ্ছাসেবকদের ওপর চড়াও হয়ে মারমুখি হয়ে ওঠে। শুরু হয় উভয় পক্ষের হাতাহাতি। চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রোগীর লোকজন কৌশলে পালিয়ে যায়। এসময় হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে অনেক রোগীকে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *