চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের নানা অব্যবস্থাপনা করণীয় বিষয়ে হুইপ সোলায়মান হকের সাথে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের নানা অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা করণীয় বিষয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের সাথে প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ বৈঠক করেছেন। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের হাল-হকিলতের বিষয়টি স্থান পায়। দূর-দূরান্ত থেকে আগত রোগীরা হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নিতে এসে কী যে ভোগান্তির শিকার হন তা তুলে ধরেন সাংবাদিকরা।
সরকারি নিয়ম অনুযায়ী হাসপাতালে সকাল ৮টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত চিকিৎসকরা বহির্বিভাগে চিকিৎসাসেবা দেবেন। কিন্তু চুয়াডাঙ্গা হাসপাতালে গিয়ে প্রায় দেখা যায় বেশিরভাগ চিকিৎসক ১০টার আগে কর্মস্থলে যান না। আবার বেলা ১২টা বাজার পর পর বিদায় নেন। এতে প্রতিদিন শ শ দরিদ্র রোগী হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে ফিরে যান। আবার একজন মুমূর্ষু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হলেও চিকিৎসা পেতে এক ঘণ্টা পার হয়ে যায়। অনেক সময় দেখা যায় সময়ক্ষেপণের কারণে রোগীর অবস্থা আরও শোচনীয় হয়ে পড়ে। সাংবাদিকদের এসব কথা হুইপ মনোযোগ দিয়ে শোনেন।
এ সময় সাংবাদিকরা আর বলেন, গত ২৪ অক্টোবর শিক্ষক আব্দুস সালাম-সীমা দম্পতির একমাত্র মেয়ে অর্না ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় মারা যায়। ২৩ অক্টোবর বিকেলে অর্নাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তাকে ডাক্তার দেখতে আসে রাত সাড়ে ৯টায়। এভাবে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসা ও অবহেলায় যেন কোনো রোগী না মারা যায় সেদিকে দৃষ্টি দেয়ার আহ্বান জানানো হয়। মতবিনিময় সভায় চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব সভাপতি আজাদ মালিতা, সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মাহাতাব উদ্দিন, প্রেসক্লাবের যুগ্মসাধারন সম্পাদক এসএটিভি, নিউ এজ প্রতিনিধি বিপুল আশরাফ, এটিএন বাংলা প্রতিনিধি রফিক রহমান, চ্যানেল আই প্রতিনিধি রাজীব হাসান কচি, প্রথম আলো প্রতিনিধি শাহ আলম সনি, জিটিভি প্রতিনিধি রিফাত রহমান, তছিরুল আলম মালিক ডিউক ও শেখ সেলিম। পরে জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি হাসপাতালের এসব সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দেন। আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে তিনি জানান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *