চুয়াডাঙ্গা-মেহেরপুরের ৪টি আসনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের কাটছে কর্মব্যস্ত সময়

 

৫ জন স্বতন্ত্রসহ আরো ৭ জনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

স্টাফ রিপোর্টার: ঘোষিত তফশিল অনুযায়ী আজ মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। গতকাল পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী চুয়াডাঙ্গার দুটি আসনে মোট ৯ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে যুবলীগের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য শামসুল আবেদীন খোকন ও জাতীয় পার্টি মনোনীত জেলা জাপা সভাপতি অ্যাড. সোহরাব হোসেন গতকাল মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত আকবর আলী এবং স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে দর্শনা পৌরসভার সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমান মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর-১ (মেহেরপুর-মুজিবনগর) আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য গতকাল রোববার মেহেরপুর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে আরো একটি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়েছে। এনিয়ে গতকাল পর্যন্ত মোট ৬ জন মনোনয়নপত্র কিনলেন। মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনে দলীয় মনোনীত প্রার্থী গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহিদুজ্জামান খোকন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে এবার মোট ভোটার ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৯শ ৩৬জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৯৬ হাজার ৮শ ৩১ জন, মহিলা ভোটার ২ লাখ ১শ ৫ জন। এ আসনে পুরুষের তুলনায় মহিলা ভোটার অনেক বেশি। আর চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ৬৭ হাজার ৭শ ৪৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৮৩ হাজার ৬শ ৩৭ এবং মহিলা ভোটার ১ লাখ ৮৪ হাজার ১শ ৮ জন। নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট যাচ্ছে না। নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে ছাড়া নির্বাচনে যাবে না বলে ঘোষণা দিয়ে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে।

অপরদিকে গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় মহাজোটের অংশীদার দলগুলো পৃথক পৃথকভাবে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে নির্বাচন পক্রিয়া শুরু করেছে। গতকাল প্রধান নির্বাচন কমিশনার জানিয়েছে, মনোনয়নপত্র দাখিলের দিন পরিবর্তন করা হচ্ছে না। ঘোষিত তফশিল অনুযায়ী আজ মনোনয়নত্র দাখিলের শেষ দিন। গত কয়েকদিন ধরে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করলেও চুয়াডাঙ্গার দুটি আসনে কেউ দাখিল করেননি। আজ সকলেই উৎসমুখর পরিবেশে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে মনোনয়নপত্র দাখিল করবেন বলে প্রাথমিক প্রস্তুতি নিয়েছেন।

প্রাপ্ততথ্য অনুযায়ী গতকাল পর্যন্ত যারা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন তারা হলেন, চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগ মনোনীত জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন, আলমডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এম সবেদ আলী। তিনি জাসদ মনোনীত বলে জানিয়েছেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়ে না পেলেও স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে যুবদলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ শামসুল আবেদীন খোকন ও জাতীয় পার্টি মনোনীত জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি অ্যাড. সোহরাব হোসেন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।  চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে চুয়াডাঙ্গা জেলা জাতীয় পার্টির (এরশাদ) কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আকবর আলী ও দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দর্শনা পৌরসভার সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমান স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র উত্তোলন করেছেন। আকবর আলী দর্শনা হাজিপাড়ার মৃত তোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে। দর্শনা পৌরসভার সাবেক মেয়র মতিয়ার রহমান দর্শনা ইসলাম বাজারের মৃত শামসুল ইসলামের ছেলে। এছাড়া আওয়ামী লীগ মনোনীত জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক বর্তমান সংসদ সদস্য হাজি আলী আজগার টগর, ওয়ার্কার্স পার্টি মনোনীত ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম শেখ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এছাড়াও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়ে না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোননয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন প্রয়াত মীর্জা সুলতান রাজার ছোটভাই মীর্জা শাহারিয়ার মাহমুদ লণ্টু।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মনোনয়নপত্র ক্রয় করেন মেহেরপুর জেলা জাতীয় পার্টির (এরশাদ) সভাপতি আব্দুল হামিদ। এদিকে এনিয়ে মেহেরপুর-১ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য মোট ৬ জন মনোনয়নপত্র কিনলেন। মনোনয়নপত্র ক্রয়কারীরা হলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মো. জয়নাল আবদীন এমপি, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক ফরহাদ হোসেন দোদুল, জাতীয় পার্টির (আনোয়ার হোসেন মঞ্জু) পৌর মেয়র আলহাজ মো. মোতাচ্ছিম বিল্লাহ মতু ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কাওসার আলী। এদিকে গতকাল রোববার দুপুরে আলহাজ মো. জয়নাল আবেদীন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মাহমুদ হোসেন মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আলমগীর হোসেন, নূর ইসলাম প্রমুখ।

গাংনী প্রতিনিধি: আসন্ন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনে দলীয় মনোনীত প্রার্থী গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহিদুজ্জামান খোকন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। গতকাল রোববার সহকারী রিটার্নিং অফিসার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুস সালামের কাছ থেকে এ দু প্রার্থী মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন। গত শনিবার জেপি প্রার্থী আব্দুল হালিম, স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে সাবেক এমপি মকবুল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মকলেছুর রহমান মুকুল ও জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম সাজ্জাদ লিখন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। গতকাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ৪ জন স্বতন্ত্র মনোনয়নপত্র উত্তোলন করেছেন। এদিকে আনুষ্ঠানিকভাবে না হলেও প্রার্থীরা তাদের অনুসারীদের নিয়ে ভোটের বিভিন্ন কৌশল নির্ধারণে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। নেতাকর্মীদের পাশে ভেড়াতে চেষ্টার অন্ত নেই।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *