চুয়াডাঙ্গা ফটোস্ট্যাটের স্বত্বাধিকারী সদালাপী বকুলের আকস্মিক ইন্তেকাল : আজ দাফন

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা পুরাতন জেলখানার অদূরবর্তী সমবায় ব্যাংক ভবন মার্কেটের চুয়াডাঙ্গা ফটোস্ট্যাটের স্বত্বাধিকারী মাহবুবুর রহমান বকুল আর নেই। গতরাত পৌনে ১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন তিনি (ইন্না ….রাজেউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৪৮ বছর। আজ মঙ্গলবার বাদ জোহর দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদের অদূরে ব্রিজের নিকট জানাজা শেষে দক্ষিণপাড়া কবরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন হবে।

চুয়াডাঙ্গা দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়ার মরহুম মজিবর রহমানের ছেলে মাহবুবুর রহমান বকুল গত রাত ১২টার দিকে নিজ বাড়িতেই ছিলেন। বুকে তীব্র ব্যথা অনুভব করেন। তাকে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। ভর্তির কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। সদালাপী বকুল আর নেই, এ খবর রাতেই পরিচিতদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে। পরিবারের সদস্যরা বলেছেন, বকুল বেশ কিছুদিন ধরে ডায়েবেটিসে আক্রান্ত ছিলেন। হৃদরোগের কথা তিনি কখনো বলেননি। অথচ গতরাতে বুকের তীব্র ব্যাথায় কাতর হয়ে শেষ পর্যন্ত ইন্তেকাল করলেন।

মাহবুবুর রহমান বকুল চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের মার্কেটে চুয়াডাঙ্গা ফটোস্ট্যাট ব্যবসা করতেন। এ ছাড়াও বিএডিসির ঠিকাদারি ব্যবসায় তিনি একজনের সাথে অংশীদার ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি মা, স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ বাদ জোহর চুয়াডাঙ্গা মাথাভাঙ্গা ব্রিজের দৌলাতদিয়াড় দক্ষিণপাড়া প্রান্তের ময়দানে জানাজা শেষে দক্ষিণপাড়া কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হবে। মাহবুবুর রহমান বকুল ছিলেন দৈনিক মাথাভাঙ্গা পরিবারের অকৃত্রিম বন্ধু। তার অকালমৃত্যুতে দৈনিক মাথাভাঙ্গা সম্পাদক প্রেসক্লাব সেক্রেটারি সরদার আল আমিন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। একই সাথে তিনি শোক সন্তুপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *