চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহসহ সারাদেশে কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ : পুলিশি বাধা

৫ জানুয়ারি একতরফা নির্বাচন বাতিলসহ সংসদ অধিবেশন আহ্বানের প্রতিবাদে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৯ দলের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহসহ সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৯ দলীয় জোট কালো পতাকা মিছিল করেছে। গতকাল বুধবার বিএনপির কালো পতাকা মিছিলে চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহসহ দেশের অধিকাংশ স্থানেই পুলিশ বাধা দেয়। বিএনপি নেতাদের দাবি, তাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পরিকল্পিতভাবে পালন করতে দেয়নি পুলিশ।

সংসদ অধিবেশন আহ্বানের প্রতিবাদে সারাদেশে কালো পতাকা মিছিল করে প্রতিবাদ জানিয়েছে ১৯ দলীয় জোট। গতকাল প্রায় প্রতিটি জেলা-উপজেলা ও মহানগরীতে এ কর্মসূচি পালিত হয়। রাজধানীতে কালো পতাকা মিছিলের অনুমতি না দেয়ায় ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। তবে পুলিশের বাধায় বিভিন্ন জেলায় ১৯ দলের কালো পতাকা মিছিল পণ্ড হয়ে যায়। অনেক জায়গায় বিরোধী জোটের নেতাকর্মীদের হাত থেকে পতাকা কেড়ে নেয় পুলিশ। চুয়াডাঙ্গা বিএনপির পৃথক তিনটি অংশ পৃথক স্থান থেকে পৃথক সময়ে বের করা হয়। মিছিলগুলো পুলিশি বাধায় জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করতে না পারলেও শহীদ হাসান চত্বর অতিক্রম করে।

৫ জানুয়ারির প্রহসনের নির্বাচন এবং অবৈধ সংসদ বাতিল, আলোচনার মাধ্যমে নতুন তফশিল ঘোষণা এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি কালো পতাকা মিছিল বের করে। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টায় জেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে কালো পতাকা মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা বিএনপির কার্যালয়ে এসে শেষ হয়। মিছিল শেষে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সহসভাপতি এম জেনারেল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির যুগ্মসম্পাদক ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, সদর পৌর বিএনপির সভাপতি শহিদুল ইসলাম রতন, সাধারণ সম্পাদক মজিবুল হক মালিক মজু, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর মন্টু, দর্শনা পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, জেলা জাসাস সভাপতি শহিদুল হক বিশ্বাস, অ্যাড. মইনুল হোসেন, মনিরুজ্জামান মনি, নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান, আসাদুজ্জামান, রবিউল ইসলাম লিটন, আশরাফ বিশ্বাস মিল্টু, মোখলেছুজ্জামান মোখলেছ, মো. ফজলুর রহমান, সুশীল কুমার দাস, মহিদুল ইসলাম, গোলাম কিবরিয়া তিস্তা, মামুন রেজা সবুজ, আরিফুজ্জামান পিন্টু, আতিয়ার রহমান লিটন, এমএ তালহা, রাজীব খান, সুজন মালিক, কামরুজ্জামান বাবলু, অধ্যাপক আতিয়ার রহমান, সাহাদত হোসেন মাস্টার, মাহবুবুল হক খোকন, রবিউল ইসলাম, আব্দুস ছাত্তার, শাহনেওয়াজ কালু, আব্দুল মজিদ, মিলন মিয়া, ফারুক আহমেদ, আইনুল হক, আহসান হাবীব মুক্তি, মাগরিবুর রহমান প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, অবিলম্বে নতুন নির্বাচন দিয়ে মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটাতে হবে। ভোটারবিহীন নির্বাচনে এ সরকার অবৈধ সরকার।

৫ জানুয়ারির প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের ভোটাধিকার হরণের প্রতিবাদে বেগম খালেদা জিয়ার আহ্বানে চুয়াডাঙ্গা জেলা ১৯ দলীয় জোটের উদ্যোগে কালো পতাকা মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। কালো পতাকা মিছিলটি বেলা ১১টায় কোর্টমোড় থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় কোর্টমোড়ে এসে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন- চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি একাংশের সাংগঠনিক সম্পাদক রউফুন নাহার রিনা। কালো পতাকা মিছিল ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন- জেলা বিএনপি একাংশের সহসভাপতি সদর উপজেলা ১৯ দলীয় জোটের আহ্বায়ক অ্যাড. এমএম শাজাহান মুকুল। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি একাংশের যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদুল হক পল্টু, সহসাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মনি, যুববিষয়ক সম্পাদক সাইফুর রশিদ ঝন্টু, আবু বক্কর সিদ্দিক আবু, আওরঙ্গজেব বেল্টু, হাজি আব্দুল খালেক, মফিজুর রহমান, অ্যাড. মাসুদ পারভেজ রাসেল, হাজি আ. মান্নান, মিজানুর রহমান, নুর গনি, নুর নবী সামদানি প্রমুখ।

বিএনপি নেতা লে. কর্নেল (অব.) কামরুজ্জামান বলেছেন, আসুন আমরা সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধ হই। আমাদের মধ্যে কে নেতা আর কে কর্মী এসব ভুলে গিয়ে দেশরক্ষার আন্দোলনে ঝঁপিয়ে পড়ি। তিনি গতকাল বিকেলে প্রহসনের নির্বাচন বাতিল ও সরকার পতনের দাবিতে কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল শেষে সাহিত্য পরিষদ প্রাঙ্গণে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তৃতাকালে উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে একথা বলেন। বক্তব্য রাখেন- চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার আলী হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আব্দুল জব্বার সোনা, প্রচার সম্পাদক জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের আহ্বায়ক অ্যাড. আব্দুল ওহাব মল্লিক, সহপ্রচার সম্পাদক রেজাউল করিম মুকুট, সেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি মহসিন আলী বিশ্বাস, যুবদল নেতা মফিজুর রহমান মনা, আলমগীর কবির, শরিফুল আলম বিলাস, বিএনপি নেতা শহর আলী, সদর উপজেলা শ্রমিকদলের আহ্বায়ক শহীদ হোসেন লাড্ডু ও আলুকদিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদ টিপু। উপস্থিত ছিলেন- নজরুল, যুবদল নেতা ইকরামুল হক ইকরা, খালেক মেম্বার, মান্নান মেম্বার, আকদের মেম্বার, আক্তার হোসেন আকু, তারিকুজ্জামান লাল্টু, রুবেল, আব্দুল লতিফ ফতু প্রমুখ।

এর আগে শহরের পান্না সিনেমাহলের সামনে থেকে কালো পতাকা নিয়ে একটি  মিছিল বের করা হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন কর্নেল কামরুজ্জামান। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সাহিত্য পরিষদ প্রাঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়।

আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গা উপজেলা বিএনপির সভাপতি শহিদুল কাউনাইন টিলুর নেতৃত্বে গতকাল বিকেল ৪টায় কালো পতাকা মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে দলীয় কার্যালয়ের পাশে সমাবেশ করে। পৌর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইস্রাফ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা বিএনপি সভাপতি কেন্দ্রীয় কৃষকদলের সদস্য শহিদুল কাউনাইন টিলু। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শেখ সাইফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা জামায়াতের আমির নূর মোহাম্মদ টিপু, উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার, পৌর সম্পাদক আজিজুর রহমান পিন্টু, বিএনপি নেতা আসিরুল ইসলাম সেলিম প্রমুখ।

অপরদিকে বিএনপির অপরাংশও (অহিদুল ইসলাম বিশ্বাস গ্রুপ) জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি, আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র মীর মহিউদ্দীনের নেতৃত্বে শহরে কালো পতাকা মিছিল বের করা হয়। বিকেলে আলমডাঙ্গা শহরের এটিম ফুটবল মাঠ থেকে মিছিলটি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদর্শন শেষে ওই ফুটবল মাঠে ফিরে গিয়ে এক সমাবেশ করে। সমাবেশে উপজেলা বিএনপির সভাপতি মজিবার রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-জেলা বিএনপি’র সিনিয়র সহসভাপতি মেয়র মীর মহিউদ্দীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-  জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রউফুন নাহার রীনা, যুগ্মসম্পাদক মাহমুদুল হক পল্টু, আলমডাঙ্গা উপজেলা সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান সানোয়ার হোসেন লাড্ডু, সহসভাপতি নাসির উদ্দীন নান্নু, পৌর জামায়াতের আমির আব্দুল জলিল,উপজেলা জামায়াতের নায়েবে আমির নজরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান তোবারেক হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান মিনাজ উদ্দীন, ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রোকন, জামায়াত সেক্রেটারি শেখ রবিউল ইসলাম প্রমুখ।

জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, গতকাল বুধবার বিকেলে জীবননগরে বিএনপি কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে। জীবননগর পৌর বিএনপি হাসপাতাল সড়কের কার্যালয় থেকে কালো পতাকা হাতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। জেলা বিএনপির সহসভাপতি সাইদুর রহমান ধুন্দু, পৌর বিএনপি সভাপতি শাহজাহান কবীর ও সাধারণ সম্পাদক মাহতাব উদ্দিনের নেতৃত্বে এ মিছিল বের করা হয়। শেষে পৌর বিএনপি নেতা শাহজাহান কবীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি নেতা সাইদুর রহমান ধুন্দু, পৌর বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মাহতাব উদ্দিন, বিএনপি নেতা সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আশরাফুল হক, আব্দুল খালেক ও সাবদার রহমান। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন- পৌর কাউন্সিলর নবী শাহ্, আবু হাসান, রবি সর্দার, আহাম্মদ আলী, সোহাগ মেম্বার, মশিয়ার রহমান, যুবদল নেতা মনির, হামিদ, বকুল, ছাত্রদল নেতা জাকির আহমেদ শামীম, সাইদুর রহমান, জাহিদ, ইকরামুল প্রমুখ।

জীবননগর উপজেলা বিএনপির একাংশ নোয়াব আলী গ্রুপ ও পৌর বিএনপি পৃথকভাবে এ মিছিল করে। বিকেলে দলীয় কার্যালয় থেকে উপজেলা বিএনপির একাংশ সভাপতি পৌর মেয়র নোয়াব আলীর নেতৃত্বে শহরে কালো পতাকা মিছিল বের করা হয়। মিছিল শেষে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপি নেতা পৌর মেয়র নোয়াব আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা দলের সভানেত্রী জীবননগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা আক্তার রিনি, পৌর বিএনপি সভাপতি পৌর প্যানেল মেয়র মশিউর রহমান, বিএনপি নেতা পৌর কাউন্সিলর হযরত আলী, কাউন্সিলর সামসুজ্জামান হান্নু, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তাজুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক আনিসুর রহমান শিপলু, বিএনপি নেতা বদরউদ্দিন বাদল, হারুন-অর রশিদ, মজনু মিয়া, হারেজ উদ্দিন মেম্বার, যুবদল নেতা আবুল হোসেন তোয়া, ছাত্রদল নেতা হাসান, রয়েল, ইয়াদুল, সুজন, বাপ্পা, শরিফুল ও বাবুল প্রমুখ।

দামুড়হুদা অফিস জানিয়েছে, গতকাল বিকেল ৪টায় ব্রিজরোডের আড়তপট্টি থেকে সাবেক এমপি বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান হবি ও ১৯ দলের উপজেলা আহ্বায়ক লিয়াকত আলী শাহ’র নেতৃত্বে মিছিলটি উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনার চত্বরে শেষ হয়। মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান হবি, লিয়াকত আলী শাহ, জেলা জামায়াত সেক্রেটারি মাও. আজিজুর রহমান, থানা আমির নায়েব আলী, সেক্রেটারি আ. গফুর, উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন, দামুড়হুদা ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি আ. রহমান মালিথা, বিএনপি নেতা মোহাম্মদ আলী শাহ মিন্টু ও একাংশের সভাপতি আ. ওয়াহেদ, নতিপোতা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি কামরুজ্জামান টুনু, সেক্রেটারি শহিদুল হক মোল্লা, কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল কাশেম, সেক্রেটারি আ. রাজ্জাক, কুড়ালগাছি ইউনিয়ন বিএনপির সেক্রেটারি আ. রশিদ, মদনা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম, সেক্রেটারি শফিউল্লাহ, জামায়াতে ইসলামী সদর ইউনিয়ন আমির শরিফুল আলম মিল্টন, সেক্রেটারি মনিরুল আলম, মাও. আব্দুস সাত্তার। উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি নেতা রকিবুল হাসান, ইসমাইল হোসেন, আবুল হাশেম, ইকরামুল হক মেম্বার, যুবদল নেতা আনোয়ার হোসেন, সামছুল ইসলাম, আবু সাঈদ বিশ্বাস, ছাত্রদলের জেলা সদস্য মাসুদ রানা, ফিরোজ হাসান মন্টু, সাকিল, আরিফ, মিল্টন, ইজাজুল প্রমুখ।

দর্শনা অফিস জানিয়েছে, গতকাল বুধবার বিকালে চুয়াডাঙ্গা জেলা জিয়া মঞ্চের উদ্যোগে দর্শনা রেলইয়ার্ড থেকে কালো পতাকা মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করেছে। জিয়া মঞ্চের আহ্বায়ক নাহারুল ইসলাম মাস্টারের নেতৃত্বে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আজিজুল হক, নজরুল ইসলাম, সেলিম উদ্দিন, শাহদত, নুর ইসলাম, আশরাফুল হক, যুবদল নেতা আবু সাঈদ, শহিদুল, সানোয়ার, মনিরুল, মোতালেব, পিয়ার, নুরুল, শরীফ, কাশেম, মিশুল, ছাত্রদলনেতা জাহান আলী, এছাড়া গতকাল দর্শনায় বিএনপির উদ্যোগে কালো পতাকা মিছিল বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করা হয়। মিছিলে ছিলেন বিএনপি নেতা খাজা আবুল হাসনাত, হাবিবুল্লাহ, মহবুবউল ইসলাম খোকন, রফিকুল আলম প্রমুখ।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় কর্মসুচির অংশ হিসেবে ঝিনাইদহে কালো পতাকা মিছিল ও সমাবেশ করেছেন জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শহরের প্রিয়া সিনেমা হলের সামনে থেকে কালো পতাকা মিছিলটি বের হয়। মিছিলটি শহরের পাঁয়রা চত্বরে পৌঁছুলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। পরে পুলিশের বাধা ভেঙে মিছিলকারীরা বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহরের কেপি বসু সড়কের জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। সমাবেশে বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ঝিনাইদহ জেলা বিএনপি সভাপতি মসিউর রহমান, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক, বিএনপি নেতা অ্যাড. এমএ মজিদ, আবদুল মতলেব, জাহিদুজ্জামান মনা, আব্দুল আলীম, আনোয়ারুল ইসলাম বাদশা বক্তব্য রাখেন। জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *