চুয়াডাঙ্গায় চিকিৎসা নিতে আসা এক রোগীর দিনভর বিড়ম্বনা

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গায় চিকিৎসা নিতে আসা শঙ্করচন্দ্রের নতুন ভাণ্ডারদহের শওকত আলী (৪৫) ক্লিনিকের এক দালালের প্ররোচণায় দিনভর নাকানি চুবানি খেয়ে শেষ পর্যন্ত হাসপাতালে ঠাঁই নিয়েছেন। দেশ ক্লিনিক ছেড়ে তিনি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পৌঁছে যেন দম ছেড়ে বাঁচেন। বলেন, চিকিৎসা নিতে এসে দিনভর হয়রানির কথা।

নতুন ভাণ্ডারদহের জামাত আলীর ছেলে শাওকত আলী বলেছেন, পেটে ব্যথা আর মাথা যন্ত্রণাসহ জ্বরে ভুগছি। হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য সকালে এসেছি। কুলচারার শান্তর সাথে দেখা। সুচিকিৎসার কথা বলে একের পর এক পরীক্ষা করায়। হাসপাতালের ইমার্জেন্সিতে নিয়ে ডাক্তার দেখায়। এরপর হাসপাতালে ভর্তি হতে চাইলে শান্ত দুর্গন্ধের কথা বলে নিয়ে যায় দেশ ক্লিনিকে। ওষুধ দেয়। সন্ধ্যার পর ইনজেকশন দিলে যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকি। উপায় না পেয়ে ক্লিনিক থেকে হাসপাতালে ছুটে এসেছি। এখন ওরা আমার কাছে দু হাজার টাকা দাবি করছে। অতো টাকা দেবো কেন?

Leave a comment

Your email address will not be published.