চুয়াডাঙ্গার হানুরবাড়াদির গৃহবধূ যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের শিকার

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার হানুরবাড়াদির গৃহবধূ শেফালী খাতুনকে গুরতর অবস্থায় হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল রাত ১০টার দিকে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। শেফালী খাতুনকে তার স্বামী যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন করেছে বলে অভিযোগ তোলা হয়েছে।
অভিযোগে জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গার তিতুদহ ইউনিয়নের বলদিয়া গ্রামের লাল মোহাম্মদের মেয়ে শেফালী খাতুনের সাড়ে ৩ আগে বিয়ে হয় হানুরবাড়াদির গ্রামের হাসান আলীর সাথে। বিয়ের সময় যৌতুক হিসেবে ২ লাখ টাকা, ১ লাখ টাকার জিনিসপত্র ও গরু দেয়া হয়। তারপরও আরও যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন করে আসছে হাসান আলীসহ তার পরিবারের সদস্যরা। গতকাল বুধবার রাত ৭টার দিকে শেফালী খাতুনকে তার স্বামী, শাশুড়ি ও ননদ মিলে দলেচটকে নির্যাতন করে। একপর্যায়ে স্বামী হাসান আলী তার স্ত্রীকে তলপেটে লাথি মারে। এ সময় শেফালী খাতুন অজ্ঞান হয়ে পড়লে দ্রুত নেয়া হয় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে। চিকিৎসক জানিয়েছেন, শেফালী খাতুনের অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় তার অবস্থা গুরতর।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *