চুয়াডাঙ্গার যদুপরে নিম্নমানের ইট দিয়ে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ : গ্রামবাসীর প্রতিবাদ ঠিকাদারের থোড়াই কেয়ার!

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা সদরের যদুপুর গ্রামে রাস্তা নির্মাণে একেবারেই নিম্নমানের ইট দিয়ে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে। গ্রামবাসী প্রতিবাদ করলেও ঠিকাদার তাতে কোনো রকম কর্ণপাতই করছেন না। গ্রামবাসীর জোর দাবি রাস্তার কাজটি যেন সিডিউল মোতাবেক হয়।

গ্রামবাসীর অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের যদুপুর গ্রামের মধ্যকার ১ হাজার ৬৩ মিটার হেরিং রাস্তা পাকা করণের জন্য টেন্ডার ঘোষাণা করে এলজিইডি। কাজের বরাদ্দ ব্যয় নির্ধারণ করা হয় ৫৭ লাখ ৬২ হাজার ৭১৫ টাকা। ওই কাজের টেন্ডার পায় চুয়াডাঙ্গার জনৈক এক ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। গত শুক্রবার শনিবার অফিস ছুটির দিনে কাজ শুরু করে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান। যাতে করে কাজ দেখাভাল করা কর্মকর্তারা ছুটিতে থাকে। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান এতোটাই নিম্নমানের ইট দিয়ে রাস্তার কাজ শুরু করে যে গ্রামবাসী প্রতিবাদী হয়ে ওঠে।

গ্রামবাসী আরও বলেন, ইটের খোয়া করা হচ্ছে রাবিস ইট দিয়ে। বালি এবং রুলার করেছে নামকা ওয়াস্তে। এত অনিয়ম দেখে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং ঠিকাদারের লোকজনকে বলেও কোনো লাভ হয়নি। সরকারি টাকায় এত নিম্নমানের কাজ হচ্ছে যা বলার মতো না। এব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা প্রকৌশলী বলেন বিষয়টি আমার কানে এসেছে তাই কাজটি বুঝ করে নেয়ার জন্য লোক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বিষয়টির প্রতি চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন গ্রামবাসী।

Leave a comment

Your email address will not be published.