চুয়াডাঙ্গার মোমিনপুর রেলস্টেশনে এলোপাতারি পাথর নিক্ষেপে দুজন জখম : ট্রেন দেখলে আতঙ্ক

মোমিনপুর প্রতিনিধি: চলন্ত ট্রেনে যাত্রীবাহী বগি থেকে পাথর নিক্ষেপে ইতঃপূর্বে চট্রগ্রামে এক প্রকৌশলী নিহতসহ পাথর ছুড়ে মারার ঘটনার অসংখ্য রেকর্ড রয়েছে। চুয়াডাঙ্গার মুন্সিগঞ্জ রেলস্টেশনে ইতঃপূর্বে একাধিকবার পাথর ছুড়ে মারার ঘটনা রয়েছে। চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের মোমিনপুর রেলষ্টেশনে এর আগে পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ৪/৫ বার থাকলেও তখন জখমের ঘটনা ঘটেনি। শুধুমাত্র একটি আন্তঃনগর ট্রেন থেকে বার বার কে বা কারা পাথর ছুড়ে মারছে।

জানা গেছে, খুলনা টু রাজশাহী অভিমুখি আপ আন্তঃনগর সাগরদাড়ী ট্রেনটি গতকাল রোববার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে জেলা সদরের মোমিনপুর স্টেশন অতিক্রম হওয়ার সময় চলন্ত ট্রেনের ভেতর থেকে দুষ্কৃতীরা অবিরাম পাথর ছুড়ে মারে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নীলমনিগঞ্জ বাজারস্থ মোমিনপুর রেলস্টেশনের পশ্চিম দিকের রেলগেট সংলগ্ন লাল্টুর চায়ের দোকানে ৮/১০ জন বসেছিলো। হঠাত দ্রুতবেগে যাওয়া সাগরদাঁড়ি ট্রেন থেকে বৃষ্টির মতো পাথর নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। চলন্ত ট্রেনের ভেতর থেকে পাথর ছুড়ে মারলে লাল্টুর চায়ের দোকানে চা পান করতে আসা মোমিনপুর গ্রামের টাইফুল ও দেলোয়ার নামের দুজন জখম হন। এ সময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে সবাই মাথায় হাত দিয়ে দৌঁড় দিয়ে চলে যায়।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, আন্তঃনগর ট্রেনে নিরাপত্তা বাহিনী জিআরপি পুলিশ টহলে নিযুক্ত থাকার পর কীভাবে যাত্রী বেসে থাকা দুষ্কৃতীরা পাথর ছুড়ে মারে। এলাকার সচেতনমহল বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার জন্য জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *