চুয়াডাঙ্গার দর্শনা প্রেসক্লাবে জরুরিসভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত : গঠনতন্ত্র পরিপন্থি কার্যক্রমের দায়ে ১০ জন বহিষ্কৃত

 

স্টাফ রিপোটার: দর্শনা প্রেসক্লাবের নির্বাচনীতে পরাজিত অংশ পৃথক মনগড়া কমিটি গঠন করেছে। এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে দর্শনা প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র পরপন্থি কার্যকলাপের অভিযোগ এনে ১০ জনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। গতকাল দর্শনা প্রেসক্লাবের কার্যকরি কমিটি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়।

দর্শনা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অভিন্ন ভাষায় বলেছেন, নির্বাচনে পরাজয়ের গ্লানি ঢাকতে পরাজিতরা মনগড়া হস্যকর কমিটি ঘোষণা করেছে। এতে গঠনতন্ত্রের অবমাননা ও সংগঠনের মর্যাদা চরমভাবে ক্ষুণ্ণ হয়েছে। ফলে দর্শনা প্রেসক্লাবে জরুরি বৈঠকে গঠনতন্ত্র পরিপন্থি কার্যকলাপের দায়ে ১০ জনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত ২৭ জুন অনুষ্ঠিত হয় দর্শনা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। এ নির্বাচনে আওয়াল-ওসমানপ্যানেলকে গোপন ব্যালেটে ভোটের মাধ্যমে হারিয়ে সভাপতি পদে ইকরামুল হক পিপুল, সহসভাপতি পদে আজিমুদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক পদে হারুন রাজু, যুগ্মসম্পাদক পদে আহসান হাবীব মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মনিরুজ্জামান সুমন, দফতর সম্পাদক পদে জিল্লুর রহমান মধু, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে মোস্তাফিজুর রহমান কচি, কার্যনির্বাহী সদস্য জামান তারিক, ইয়াছির আরাফাত মিলন ও হানিফ মণ্ডল নির্বাচিত হন। বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন কোষাধ্যক্ষ জাহিদুল ইসলাম, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান তুহিন ও ক্রীড়া সম্পাদক মুনজুরুল ইসলাম।

অবশেষে গত পরশু শনিবার বিকেলে নির্বাচিত কমিটিকে তোয়াক্কা না করেই প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র বহিঃভূর্তভাবে কমিটি ঘোষণা করেছে। ফলে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় দর্শনা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত জরুরি বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে গঠনতন্ত্রের ৬ ও ৭ পৃষ্ঠার ৯ ধারার (ঘ) অনুচ্ছেদে কার্যনির্বাহী পরিষদের ২ তৃতীয়াংশের মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্তের কথা উল্লেখ থাকলে আলোকে পরিষদের ১৩ জনের মধ্যে ১২ জনের মতামতে গ্রহণ করা হয়েছে সিদ্ধান্ত।

প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল হক পিপুল সাক্ষরিত প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সংবিধান পরিপন্থি কমিটি ঘোষণার অপরাধে নুরুল আলম বাকু, এফএ আলমগীর, আবদুল জলিল, জাহিদুল ইসলাম, কামরুজ্জামান যুদ্ধ, আওয়াল হোসেন, এসএম ওসমান ও সাব্বির আলীমসহ ১০ জনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান ওই কমিটি গঠনের ব্যপারে জানেন না বলে জানালে, তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, সাময়িক বহিষ্কৃতদের মধ্যে কেউ নিজেকে সুধরে আবেদন করলে তা বিবেচনা করা হতে পারে। অন্যথায় গ্রহণ করা হতে পারে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত। ক্লাবের সভাপতি ইকরামুল হক পিপুলের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন, সহসভাপতি আজিমুদ্দিন আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক হারুন রাজু, যুগ্ম সম্পাদক আহসান হাবীব মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুমন, দফতর সম্পাদক জিল্লুর রহমান মধু, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান কচি, ক্রিড়া সম্পাদক মুনজুরুল ইসলাম, কার্যনির্বাহী সদস্য জামান তারিক, ইয়াছির আরাফাত মিলন, হানিফ মণ্ডল। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, দর্শনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মনিরুজ্জামান ধীরু, যুগ্ম সম্পাদক চঞ্চল মেহমুদ, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *