চুয়াডাঙ্গার গোকুলখালীতে ডা. আফছার উদ্দিন কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক

?

দেশের উন্নয়ন ও সাফল্য শিক্ষার্থীদের সামাজিক ও নৈতিক মূল্যবোধের ওপর নির্ভরশীল
স্টাফ রিপোর্টার: ‘সুশিক্ষার বিকল্প নেই। আদর্শ জাতি গঠনে প্রয়োজন উচ্চশিক্ষা। পুঁথিগত বিদ্যার পাশাপাশি শারীরিক ও মানসিক বিকাশে ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চা অত্যাবশ্যক। আজকের শিক্ষার্থী আগামী দিনের কর্ণধার। কারণ, তাদের সামাজিক ও নৈতিক মূল্যবোধের ওপরই নির্ভর করে রাষ্ট্রের উন্নয়ন ও সাফল্য।’ গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গার ডা. আফছার উদ্দিন কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানে উপরোক্ত মন্তব্য করেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ। তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। আর সুশিক্ষায় শিক্ষিত হতে হলে নতুন উদ্যমে মনোযোগ সহকারে লেখাপড়া করতে হবে। উন্নত দেশ ও জাতি গঠনে শিক্ষার্থীরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। শিক্ষার্থীরা দেশ ও জাতির সম্পদ। আজ এবং আগামীর ভবিষ্যৎ। শিক্ষাজীবন মানুষের জীবন গঠনের প্রস্তুতিকাল। এই সময়েই তাদেরকে জীবনের আদর্শ কাঠামো তৈরি করতে হবে, যেনো তারা ভবিষ্যতে দেশ ও জাতির প্রতি দায়িত্ব পালন করতে পারে।’
ডা. আফছার উদ্দিন কলেজের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ মাহবুবুল ইসলাম সেলিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, ২ নং প্যানেল মেয়র মুন্সি রেজাউল করিম, ভি.জে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজুল হোসেন উজ্জ্বল, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ, গোকুলখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহাবুল হক, চুয়াডাঙ্গা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নূর হোসেন, নতিপোতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোমিনুল হক, কলাবাড়ী-রামনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান ও উম্মাত বিশ্বাস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মামুনুর রশীদ। শামীম রেজার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা দোকান মালিক সমিতির প্রচার সম্পাদক মাফিজুর রহমান মাফি, পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কলেজের প্রভাষক (ইংরেজি) মারুফ হুসাইন। কলেজের শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন প্রথম বর্ষের ছাত্রী নাহিদা আফরিন ও বিদায়ী শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন রমজান আলী। অনুষ্ঠানে পরীক্ষার্থীদের অসাদুপায় পরিহারসহ বিভিন্ন দিক নির্দেশনা দেন অতিথিবৃন্দ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *